মঙ্গলবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে পাকিস্তানকে সতর্ক করলেন মোদি

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :ভারতের স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রতিবেশী পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দিয়েছেন। নাম না ধরলেও ইসলামাবাদকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেছেন, ‘কোনো দেশের বিষয়ে নাক গলানোর আগে নিজেদের পেছনে তাকান। ভারত কখনোই সন্ত্রাসে মদদকে সহ্য করবে না।’

145138_148

৭০তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সোমবার (১৫ আগস্ট) লালকেল্লায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছিলেন মোদি।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে অবস্থানের কারণে গত ক’দিন ধরে খোদ পাকিস্তানের বেলুচ জনগণই আমাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছে। ওই বেলুচ জনগণ তাদের স্বদেশিদের হাতেই আক্রান্ত হচ্ছেন নিয়মিত।’

তিনি ভারতের মানবতাবোধের উদাহরণ দিয়ে বলেন, ‘২০১৪ সালে পেশোয়ারের স্কুলে সন্ত্রাসী হামলায় যখন শ’ শ’ শিশু মরলো তখন ভারতীয়রাও কেঁদেছে। আমরা এমনই। কিন্তু অন্য দিকে দেখুন। তারা সন্ত্রাসীদের মদদ দিচ্ছে।’

মোদি পাকিস্তানের নাম না ধরলেও তাদের ইঙ্গিত করে বলেন, ‘অন্য দেশের ব্যাপারে নাক গলানোর আগে নিজেদের উঠোনেই তাকান। ’

বেলুচ জনগণের ওপর পাকিস্তানের ‘স্বৈরাচারী আচরণ’ নিয়ে দু’দিন আগে দেওয়া বক্তৃতা পুনরায় উল্লেখ করে মোদি বলেন, ‘বেলুচিস্তান ও পাকিস্তান অধ্যুষিত কাশ্মীরে জনগণের প্রতি স্বৈরাচারী আচরণের জবাব দেওয়ার সময় এসেছে ইসলামাবাদের।’

কাশ্মীর বা সেখানকার জঙ্গি সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের নিহত নেতা বুরহান ওয়ানির নাম না ধরলেও মোদি বলেন, ‘সন্ত্রাসীদের মদদপুষ্ট হওয়াটা ভারত কখনোই সহ্য করবে না।’

ভারতীয় বাহিনীর হাতে এই ওয়ানি নিহত হওয়ায় ‘গভীরভাবে স্তম্ভিত’ হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। এমনকি ওয়ানিকে ‘শহীদ’ বলে আখ্যা দিয়েছিলেন জঙ্গি নেতা হাফিজ সাঈদও।

মোদি সাফ জানিয়ে দেন, তার দেশ কখনো সন্ত্রাসের কাছে হেরে যাবে না।ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে দেশের উন্নয়নে ভবিষ্যৎ নানা পরিকল্পনার কথাও তুলে ধরেন।
এই অনুষ্ঠানে অংশ নেন ভারত সরকারের মন্ত্রী, শীর্ষ পর্যায়ের রাজনীতিক ও কর্মকর্তারা।