শুক্রবার, ২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বাঞ্ছারামপুরে পুলিশের প্রিজনভ্যানে পা’য়ের হাড় দুখন্ড হয়ে গেলো দিনমজুরের

AmaderBrahmanbaria.COM
জুলাই ১৭, ২০১৭
news-image

---

ফয়সল আহমেদ খান খান , বাঞ্ছারামপুর : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার নিয়মিত টহল প্রিজনভ্যানের নীচে চাপা পড়ে ডান পায়ের গোড়ালী দুভাগ হয়ে গেছে বলে সরেজমিনে দেখা গেছে।
খোজ নিয়ে জানা গেছে,বাঞ্ছারামপুর উপজেলার নতুন কদমতুলীর অতীব দরিদ্র দিনমজুর ও দুই কন্যা এক ছেলের পিতা মো.ওসমান মিয়া(৫০) আজ (সোমবার) অভাবের তাড়নায় দিশেহারা হয়ে শেষ সম্বল নিজের পৈত্রিকভিটাটুকুন বিক্রি করতে কদমতুলী গ্রাম হতে বাঞ্ছারামপুর সাবরেজিষ্ট্রার অফিসে আসেন বসতভিটা বিক্রি করতে।বেলা ১টার দিকে,সাব-রেজিষ্ট্রার অফিস হতে রাস্তায় জমির কাগজ ফটোকপি করতে থানা রোডের দিকে যাবার সময় বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার একটি প্রিজন ভ্যান চালিয়ে যাবার সময় রাস্তার পাশে হাটার সময় ওসমান মিয়ার পায়ে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই ডান পায়ের গোড়ালী থেকে মানব দেহের হাঁড় বাইওে বেরিয়ে আসে।রক্তে ভেসে যায় ব্যস্ত সড়ক।পওে,পুলিশের সহায়তায় বাঞ্ছারামপুর সরকারি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ওসমান মিয়াকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করা হয়।স্বামীর এমন অবস্থা দেখে ওসমান মিয়ার সাথে থাকা স্বজনদেও বিলাপে তখন আকাশ-বাতাশ ভারী হয়ে উঠে।
দূর্ঘটনার বিষয়ে ওসমান মিয়ার চাচা রুক্কু মিয়া জানান,-‘ওসমানের কোন দোষ ছিলো না।সে বা সাইড দিয়ে গাড়ি যাতায়াতের পথ রেখে হাটছিলো,কিন্তু-ভাগ্যে ছিলো,এমনটা হবে,হয়েছে।’তারা জানান,পুলিশ আমাদেও কে ঢাকা যাবার জন্য এম্বুলেন্সের ভাড়াটাই কেবল দিয়েছে।
এ বিষয়ে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ওসি(তদন্ত)মো.সাব্বির আহমেদ বলেন,-‘আমরা তার পুরো চিতিৎসা দেখভাল করবো’।

এ জাতীয় আরও খবর

এ জাতীয় আরও খবর