মঙ্গলবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ৫ ম্যাচ নিষিদ্ধ

AmaderBrahmanbaria.COM
আগস্ট ১৪, ২০১৭
news-image

---

স্পোর্টস ডেস্ক : স্প্যানিশ সুপার কাপ ফুটবলের প্রথম লেগে লাল কার্ড পেয়ে মাঠ ছাড়ার সময় রেফারিকে ধাক্কা দেয়ার জন্য ৫ ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

রোনালদোর ধাক্কা দেয়ার বিষয়টি নিয়ে ম্যাচের রেফারি রিকার্ডো ডি দে বার্গস বেনগোয়েক্সিয়ার দেয়া রিপোর্টের ভিত্তিতে ডিসিপ্লিনারি কমিটি তদন্ত শেষে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বিবিসি স্পোর্টসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয় যে, দুটো হলুদ কার্ড থাকায় ১ ম্যাচ ও রেফারিকে ধাক্কা দেয়ায় ৪ ম্যাচসহ মোট ৫ ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে।

স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের ৯৬ ধারা অনুযায়ী বলা আছে, ‘খেলা চলাকালীন বা খেলা শেষ হবার পর কোন খেলোয়াড় রেফারির প্রতি সামান্য উগ্র আচরণ করলে সেটি অপরাধ হিসেবে গন্য হবে। এছাড়া ম্যাচ পরিচালনাকারী রেফারিদের শরীর স্পর্শ বা ধাক্কা দিলেই শাস্তি পেতে হবে খেলোয়াড়দের। যেই শাস্তি সর্বনিম্ন ৪ ম্যাচ ও সর্বোচ্চ ১২ ম্যাচও হতে পারে।

গতরাতে বার্সেলোনার বিপক্ষে সুপার কাপের ম্যাচের ৮২ মিনিটে বল পেয়ে বার্সেলোনার সীমানায় ঢুকে পড়েন রোনালদো। এসময় বার্সেলোনার ডিফেন্ডার স্যামুয়েল উমতিতির সাথে ধাক্কা লেগে মাটিতে পড়ে যান রোনালদো। মাটি পড়ে গিয়ে পেনাল্টির জন্য আবেদন করেন রোনালদো। কিন্তু রেফারির চোখে সেটি ছিলো ‘ইচ্ছাকৃত ডাইভ’। তাই ম্যাচে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন রোনালদো। প্রথমটি দেখেছিলেন গোলের পর জার্সি খোলার অপরাধে। তাই দুই হলুদ কার্ডের জন্য লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় রোনালদো।

অবশ্য কার্ড পর্যন্ত বিষয়টি সীমাবদ্ধ থাকলে, সুপার কাপের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে নিষিদ্ধ থাকতেন রোনালদো। কিন্তু মাঠ ছাড়ার আগে রেফারির গায়ে ধাক্কা দিয়ে ৪ থেকে ১২ ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার সম্মুখীন হতে পারেন তিনি। যদি ডিসিপ্লিনারি কমিটির সিদ্বান্তে ৪ ম্যাচ নিষিদ্ধ হন রোনালদো, তবে তা শুধু সুপার কাপের জন্য প্রযোজ্য হবে। আর যদি ৫-এর বেশি ম্যাচ নিষিদ্ধ হন, তবে স্প্যানিশ লিগে তা প্রযোজ্য হবে। আগামী ১৭ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে সুপার কাপের দ্বিতীয় লেগ।