মঙ্গলবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বাঞ্ছারামপুরে বিবাহিতা নারীকে আবারো বিয়ে দেয়ার চেষ্টার ঘটনায় তুলকালাম !

AmaderBrahmanbaria.COM
আগস্ট ২১, ২০১৭
news-image

---

বাঞ্ছারামপুর  প্রতিনিধি : ব্রাক্ষনবাড়ীয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার পাড়াতুলি গ্রামের আবদুল বাতেন মিয়ার মেয়ে উর্মিলা আক্তার উর্মি কে আবারো বিয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।উর্মির বর্তমান স্বামী একই উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের বাতেন ব্যাপারীর ছেলে মো. বাবু মিয়া গত গত ২ রা ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে হবিগ্নজ জেলা জর্জকোর্টে দেশের প্রচলিত আইননুযায়ী বিয়ে সম্পন্ন করেন বলে কাবিননামা কাগজপত্র পড়ে স্পষ্ট প্রতীয় মান হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

জানা গেছে,বাবু মিয়ার সাথেমেয়ে অভিভাবকরো প্রভাবশালী হবার কারনে তারা সে বিয়ে না মেনে নেয়ার কারনে তাদের দাম্পত্য জীবনের কিছুদিন পর-ই বাতেন মিয়ার লোকজন জোরর্পূর্বক নিজিদেরে বাড়ি নিয়ে এসে আটকে রাখে।জানা গেছে,আগামী ২৫ শে আগষ্ট শুক্রবার শাহ রাহাত আলী কলেজের ১ম বর্ষে পড়–য়া উর্মিকে আবারো বিয়ের দেয়ার চেষ্টা চলছে একই গ্রাম পাড়াতুলীতে।

অসহায় উমির স্বামী বাবূ বলেন ,উর্মিকে আমার কাছে ফিরিয়ে দেয়ার কথা বলে ইতোমধ্যে তার চাচা ফুল মিয়া দেড় লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে তার কাছ থেকে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ঢাকা হাইকোর্টের ব্যারিষ্ট্যার মো মেজবাহ আহমেদ বলেন,-‘স্বামি থাকা অবস্থায় বিয়ে দেয়া দন্ডনিয় অপরাদ এবং ছেলে/মেয়েকে ডিভোর্স এর ৩ মাসের উপর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়।’

 

 

এ জাতীয় আরও খবর

এ জাতীয় আরও খবর