সোমবার, ১৮ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং ৪ঠা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বাঞ্ছারামপুরে মাদক বিক্রেতারা কোপালো মাদক বিরোধী সংগঠনের আহবায়কের এক কর্মকর্তাকে

AmaderBrahmanbaria.COM
অক্টোবর ৯, ২০১৭
news-image

---

বাঞ্ছারামপুর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি : এবার মাদক বিরোধী মানববন্ধন এবং মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ-প্রচারনার কারনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার রুপুসদীতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অডিট সুপাররেন্টেন্ড এবং বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় একটি মাদক বিরোধী সামাজিক সংঘঠন আহবায়ক মো.ওমর আলী (৫০)কে রাম দা দিয়ে প্রকাশ্যে কুপিয়ে দু’পা পঙ্গু করে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

খোজ ও স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রোববার ভোরে ওমর আলী ও তার সঙ্গীয় আরো আরো ৪/৫জন ব্যক্তি ফজরের নামাজ পড়ে প্রাত:ভ্রমনে বের হন। উপজেলার রুপুসদী ইউনিয়নের গোকূলনগর ব্রীজ সংলগ্ন পাকা সড়কে যাওয়ামাত্র পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দুটি সিএনজিতে করে ৫/৭ মাদকব্যবসায়ী আকষ্মিকভাবে বিশাল রাম দা-চাপাতি দিয়ে ওমর আলীর দুটি পায়ে এলোপাথারী কোপাতে থাকে।

সে সময় ওমর আলীর সাথে প্রাত:ভ্রমনকারীদের স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রত্যক্ষদর্শী বদিউল আলম ও খোকন মিয়া জানান,-‘ মাদক বিক্রেতারা একজোট হয়ে যখন কোপাতে থাকে,- তখন বলতে থাকে ‘রুপুসদীতে ইয়াবা ব্যবসা চলবে,আর মানববন্ধন বা আওয়াজ করবি?’
জানা গেছে,সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে এ ঘটনা ঘটিয়ে সন্ত্রাসীরা দ্রুত স্থান ত্যাগ করে।

ওমর আলীর ছোট ভাই জালাল জানান-‘ঘটনার পর গুরুতর আহত ওমর আলীকে একটি মাইক্রোবাসে করে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে নেয়া হয়।সন্ধ্যার সময় তার দুপায়ে অপারেশন হবার কথা জানিয়েছেন চিকিৎসক গন।তবে,তার দুটি পা হয়তো আর থাকবে না।মামলা পরে করা হবে।’

এ বিষয়ে কথা বললে বাঞ্ছারামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সাব্বির আহমেদ বলেন,-‘আমি ঘটনাটি শুনেছি।এই বিষয়ে কোন মামলা হয়নি।মামলার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে’।

উল্লেখ্য.ঢাকায় কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা মো.ওমর আলী দীর্ঘদিন ধরে নিজ পৈত্রিকবাড়ি বাঞ্ছারামপুরের রুপুসদীতে মাদক বিরোধী প্রচার-প্রচারণা করে মাদক বিরোধীদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেন।

গত মে মাসে বিশাল এক মানব বন্ধন করার পর থেকে পুলিশ একের পর এক মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করলে তাদের ব্যবসায় ধস্ নামে।
আর সেই মাদক ব্যবসায় ধস্ নামার কারনেই ওমর আলীকে মাদক ব্যবসায়ীরা কুপিয়েছে বলে স্থানীয় বাসিন্দারা ধারনা করছেন।