মঙ্গলবার, ১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং ৫ই পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

১০ ডিসেম্বর মাশরাফি-সাকিবদের কোচ চূড়ান্ত

AmaderBrahmanbaria.COM
ডিসেম্বর ৬, ২০১৭
news-image

---

সিলেট-কুমিল্লার ম্যাচ দিয়ে শেষ হবে বিপিএলের গ্রুপ পর্বের খেলা।  শুক্রবার ( ৮ ডিসেম্বর) শুরু হবে কোয়ালিফায়ার ১. এবং এলিমিনেটর ১ এর লড়াইয়।

এদিকে বুধবার (৬ ডিসেম্বর) সিলেটের বিপক্ষে কুমিল্লা যদি হারেও, টেবিলে তাদের শীর্ষস্থান নিশ্চিত। টেবিলের দ্বিতীয় দল হিসেবে শুক্রবার প্রথম কোয়ালিফায়ারে তামিম ইকবালের দলের মুখোমুখি হবে ঢাকা। এ ম্যাচে জয়ী দল সরাসরি নাম লেখাবে ফাইনালে। যে দল হারবে তাদেরও সুযোগ থাকছে ফাইনালে ওঠার।

শুক্রবার ‘এলিমিনেটর’ ম্যাচে টেবিলের তৃতীয় ও চতুর্থ দল মুখোমুখি হবে—মানে, খুলনার (তৃতীয়) বিপক্ষে লড়বে রংপুর (চতুর্থ)। এ ম্যাচে যে দল হারবে, তারা ছিটকে পড়বে আসর থেকে। জয়ী দল আগামী রোববার দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে মুখোমুখি হবে প্রথম কোয়ালিফায়ারে হেরে যাওয়া দলের। এ ম্যাচে যে দল জিতবে, তারা ফাইনালে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে জয়ী দলের মুখোমুখি হবে। এবার বিপিএল শিরোপা কার ঘরে যাচ্ছে, সেটি নির্ধারণ হবে আগামী মঙ্গলবারের ফাইনালে।

এতোসবের মাঝেও দর্শকের মনে কৌতূহলী জিজ্ঞাসা এখন কে হচ্ছেন বাংলাদেশের নতুন কোচ? সেটা কি সাক্ষাৎকার দিতে আসা রিচার্ড পাইবাস? নাকি সংক্ষিপ্ত থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ফিল সিমন্স, না অন্য কেউ?

গত দু’দিন মিডিয়ার সঙ্গে আলাপে দুই বিসিবি পরিচালক আকরাম খান ও জালাল ইউনুস জানিয়েছিলেন, বোর্ড বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বললেও এখন সম্ভাব্য কোচের সংক্ষিপ্ত তালিকায় মাত্র তিনজন। তার একজন অতি অবশ্যই রিচার্ড পাইবাস। বাকি দুইজনের নাম বলেননি আকরাম খান ও জালাল ইউনুস। তবে বোর্ডে আরও দুটি নাম ভেসে বেড়াচ্ছে। দুইজন সাবেক নামি ক্রিকেটারের। একজন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ওপেনার জিয়ফ মার্শ। অন্যজন ওয়েষ্ট ইন্ডিজের হার্ড হিটিং ব্যাটসম্যান ফিল সিমন্স।

এদের কেউ একজনই হয়তো হবেন মাশরাফি, তামিম, মুশফিক, সাকিব ও মাহমুদউল্লাহদের নতুন কোচ। এর বাইরের কাউকেও দেখা গেলেও অবাক হবার কিছু থাকবে না।

তবে যাই হোক না কেন, আগামী ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে কোচ ইস্যুর সমাধান হয়ে যেতে পারে। ঐ দিন বোর্ড পরিচালক পর্ষদের সভা। সেখানেই কোচ নিয়োগের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হবে। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আজ বিকেলে তেমনটাই জানালেন। বুধবার পাইবাসের ইন্টারভিউয়ের পর বোর্ড শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে অনেকক্ষণ আলাপ আলোচনার পর শেরে বাংলায় বিসিবি অফিসের সামনে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বোর্ড প্রধান।

অনেক কথার ভিড়ে তিনি দুটি তাৎপর্যপূর্ণ কথা বলেন। তার একটি হলো, পাইবাস একা নন। আরও ইন্টারভিউ হবে। আগামী ৯ ডিসেম্বর ইন্টারভিউ দিতে আসছেন ওয়েষ্ট ইন্ডিজের ফিল সিমন্স। আর তার আগে আরও একজন আসবেন ইন্টারভিউ দিতে। তিনি কে? তা নিয়েই জল্পনা কল্পনা। গত ৪৮ ঘণ্টায় বিসিবি অফিসের আশ পাশে ভেসে বেড়ানো দুই নাম ধরলে আরেকজন হন অস্ট্রেলিয়ান জিওফ মার্শ। কিন্তু ভেতরের খবর তিনি নন। খোদ ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি চেয়ারম্যান আকরাম খানও নিশ্চিত করে বলতে পারেননি, ৯ ডিসেম্বর ফিল সিমন্সের আগে কোন কোচ ইন্টারভিউ দিতে আসবেন?

তবে যেই আসুন না কেন, বিসিবি বিগ বসের কথায় পরিষ্কার, ‘আগামী ১০ ডিসেম্বর বোর্ড সভা আছে। তার আগে সাক্ষাৎকার পর্ব শেষ হয়ে যাবে। তার মানে শ্রীলঙ্কা সফরের আগেই হয়ত নতুন কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাবে। তবে তারপরও শ্রীলঙ্কা সফরেই যে নতুন কোচের দেখা মিলবে এমন নিশ্চয়তাও দেননি নাজমুল হাসান পাপন।