সোমবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং ১০ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সকালে খালি পেটে ঘি খাওয়ার উপকারিতা

news-image

সকালে ঘুম থেতে উঠে কেউ পানি পান করেন, কেউ নাশতা খান, কেউ আবার এক কাপ কফি পানের ভেতর দিয়ে দিন শুরু করেন। এটাই সাধারণ চিত্র। তবে আশ্চর্যের বিষয় হলেও এটা সত্যি যে, সকালে খালি পেটে ঘি খাওয়া বেশ উপকারী। সকালে উঠে এক চামচ ঘি আর এক গ্লাস গরম পানি খেতে পারেন। এই অভ্যাস আর্থ্রাইটিস, চুল পড়া প্রতিরোধসহ বিভিন্ন কাজে সাহায্য করে।

সম্প্রতি জীবনাধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের এক প্রতিবেদনে সকালে খালি পেটে ঘি খাওয়ার উপকারের কথা উঠে এসেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সকালে খালি পেটে ঘি খাওয়া কোষের কার্যক্রমকে উদ্দীপ্ত করতে সাহায্য করে। ঘি কোষকে নবজীবন দেয়। এতে কোষ ভালোভাবে কাজ করে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সহায়তা করে ঘি খাওয়ার অভ্যাস। ঘিয়ের মধ্যে কোষকে পুনর্গঠন করার ক্ষমতা রয়েছে। এটি ত্বকের প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা বাড়ায় এবং ত্বক ভালো রাখতে সাহায্য করে। ঘি ত্বককে ময়েশ্চার করে, ত্বকের রোগ সোরিয়াসিস কমাতে কাজ করে।

এই ঘিয়ের মধ্যে রয়েছে প্রাকৃতিক লুব্রিকেন্ট যা গিঁটে ব্যথা ও আর্থ্রাইটিসের সমস্যা সমাধানে কাজ করে। তাছাড়া এর মধ্যে রয়েছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড। এটি অস্টিওপরোসিস প্রতিরোধে কাজ করে এবং হাড়কে ভালো রাখে। সকালে খালি পেটে ঘি খেলে মস্তিষ্কের কোষ অনেক সক্রিয় থাকে। এটি স্মৃতিশক্তি বাড়ায়, জ্ঞানীয় কার্যক্রম ভালো রাখে। এটি ডেমেনসিয়া ও আলঝেইমার রোগ প্রতিরোধে কাজ করে। ওজন কমাতেও এর ভূমিকা রয়েছে। বলা হয়, ঘি ওজন বাড়ায়। তবে সকালে খালি পেটে ৫ থেকে ১০ মিলিলিটার ঘি খেলে ওজন কমে। এটি বিপাকের হার বাড়াতে সাহায্য করে। খালি পেটে ঘি খেলে চুলের স্বাস্থ্য ভালো থাকে।

এটি চুল পড়া প্রতিরোধে সাহায্য করে। ঘি চুল নরম, উজ্জ্বল করতে উপকারী। তবে খালি পেটে ঘি খাওয়ার আধ ঘণ্টার মধ্যে কোনো কিছু খাওয়া যাবে না।

Print Friendly, PDF & Email