মঙ্গলবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং ১০ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

মোবাইল ইন্টারনেটে বেহাল দশা বাংলাদেশের

আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭
news-image

ডেস্ক রিপোর্ট  : সম্প্রতি মোবাইল ও ব্রডব্যান্ড স্পিড (গতি) নিয়ে একটি পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে ওকলা স্পিডটেস্ট গ্লোবাল ইনডেক্স। সেখানে বলা হয়েছে, মোবাইলে ইন্টারনেট ডাউনলোড স্পিডে গোটা দুনিয়ায় বাংলাদেশের স্থান ১২০ নম্বরে। ব্রডব্যান্ডের স্পিডের দৌড়ে বাংলাদেশ রয়েছে ৮৫ নম্বরে।

বিভিন্ন দেশে মোবাইলে ইন্টারনেট ডাউনলোড স্পিড ও ব্রডব্যান্ড লাইনে ডাউনলোড স্পিড তুলনা করে সমীক্ষাটি তৈরি করেছে ওকলা।

সমীক্ষার রিপোর্টে দেখা যায়, বাংলাদেশে মোবাইলে ডাউনলোডের গড় স্পিড ৪.৯৭ মেগাবাইট পার সেকেন্ড (এমবিপিএস)। এখানে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটে প্রতি সেকেন্ডে গড়ে ১৬.১৪ মেগাবাইট ডাউনলোড করা যায়।

ওকলার সমীক্ষা অনুযায়ী সবচেয়ে কম মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড ইরাকে। এই তালিকায় ইরাকের অবস্থান ১২২তম। বাংলাদেশ ইরাকের চেয়ে মাত্র দুই ধাপ সামনে রয়েছে।

মোবাইল ইন্টারনেটের গতির তালিকায় আগের বছরের চেয়ে দুই ধাপ এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে, ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গতির তালিকায় আমরা দুই ধাপ পিছিয়ে গেছি।

‌দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতের মোবাইল ইন্টারনেট স্পিডের দিক দিয়ে অবস্থান ১০৯। সেখানে মোবাইল ডাউনলোড স্পিড ৮.৮০ এমবিপিএস। অন্যদিকে ব্রডব্যান্ড ডাউনলোড স্পিড ১৮.৮২ এমবিপিএস হওয়ায় এই তালিকায় ভারতের অবস্থান ৭৬।

পাকিস্তানের ক্ষেত্রে এই চিত্র ভিন্ন। সেখানে মোবাইলে ডাউনলোডের গতি ব্রডব্যান্ডে ডাউনলোডের গতির চেয়ে বেশি। পাকিস্তানে মোবাইলে ডাউনলোডের গড় স্পিড ১৩.৮০ এমবিপিএস আর ব্রডব্যান্ড ডাউনলোডের গড় স্পিড ৬.১৩ এমবিপিএস। মোবাইলে ডাউনলোডের তালিকায় পাকিস্তানের অবস্থান ৮৯ আর ব্রডব্যান্ড ডাউনলোডের তালিকায় ১২৬।

মোবাইল ডাউনলোডের গতির তালিকায় শ্রীলঙ্কার অবস্থান ১০৭। সেখানে মোবাইলে ডাউনলোড হয় গড়ে ৯.৩২ এমবিপিএস গতিতে। শ্রীলংকায় ব্রডব্যান্ড ডাউনলোড গড় স্পিড ১৯.২৬ হওয়ায় ওই তালিকায় দেশটির অবস্থান ৭১।

মোবাইল ইন্টারনেটের স্পিডে গোটা পৃথিবীর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে নরওয়ে। সেখানে মোবাইল ইন্টারনেটের গড় ডাউনলোড স্পিড ৬২.৬৬ এমবিপিএস। ব্রডব্যান্ডের স্পিডে এগিয়ে রয়েছে সিঙ্গাপুর। তাদের গড় ডাউনলোড স্পিড ১৫৩.৮৫ এমবিপিএস।

উৎসঃ পরিবর্তন