সোমবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং ১০ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

থাকছেন না মাওলানা সাদ : বিশ্ব ইজতেমা শুরু আজ

news-image

গাজীপুরের টঙ্গীতে আজ শুক্রবার বাদ ফজর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমা শুরু হচ্ছে। এরই মধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। চলে এসেছে মুসল্লিরাও। তবে গাজীপুরের টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমার ময়দানে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভি যাচ্ছেন না। তাঁকে ছাড়াই শুক্রবার বাদ ফজর শুরু হতে যাচ্ছে এবারের বিশ্ব ইজতেমা। বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদের যোগ দেওয়া না দেওয়া নিয়ে যে অচল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল তাঁর অবসান করেছেন মাওলানা সাদ নিজেই। এবারের বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদসহ দুই পক্ষের প্রধান দুই মুরুব্বি যোগ দিচ্ছেন না। তবে তাদের প্রতিনিধিরা ইজতেমায় অংশ নেবেন। টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে মাওলানা সাদ এ সিদ্ধান্ত  নিয়েছেন বলে কাকরাইল মসজিদ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মাওলানা সাদকে নিয়ে ইজতেমা ময়দানের বাইরে বিতর্ক থাকলেও ইজতেমা ময়দানে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত এর কোনো প্রভাব পড়তে দেখা যায়নি। এদিকে কনকনে শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে বাস-ট্রাক, কার-পিকআপসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে দলে দলে মুসল্লিরা এরই মধ্যে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমাস্থলে আসছে। তারা কাঁধে-পিঠে প্রয়োজনীয় মালামাল নিয়ে ইজতেমাস্থলে এসে নিজ জেলার খিত্তায় অবস্থান নিচ্ছে। অবশ্য গত কয়েকদিন থেকেই দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে জামাতবদ্ধ মুসল্লিরা এসে ময়দানের খিত্তায় খিত্তায় অবস্থান নিয়েছে। টঙ্গীর ইজতেমাস্থল এখন মুসল্লিদের আগমনে মুখর হয়ে উঠছে। আগত মুসল্লিদের জন্য বৃহস্পতিবার বাদ ফজর প্রস্তুতিমূলক বয়ান করা হয়। বাংলাদেশের মাওলানা মোশারফ হোসেন ওই বয়ান করেন। মাগরিবের পর মূল বয়ান শুরু হয়।

টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানের সরকারি-বেসরকারি সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব নিয়োজিত স্থানীয় আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল জানান, মাওলানা সাদের দেওয়া বয়ানকে ঘিরে তাবলিগ জামাতের সৃষ্ট দুপক্ষের অভ্যন্তরীণ ঘটনাকে কেন্দ্র করে যেসব ঘটনা ঘটেছে তার পরিপ্রেক্ষিতে মাওলানা সাদ এবারের বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিচ্ছেন না। মাওলানা সাদ চান বিশ্ব ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হোক। তাই এবারের বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদসহ উভয় পক্ষের প্রধান দুই মুরুব্বি যোগ দিচ্ছেন না। তবে তাঁদের প্রতিনিধিরা ইজতেমায় অংশ নিবেন।

জাহিদ আহসান রাসেল আরো জানিয়েছেন, তাবলিগের শীর্ষ পর্যায়ের মুরুব্বিদের দুপক্ষের আলোচনায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তাবলিগ জামাতের আমির এবং আখেরি মোনাজাত কে পরিচালনা করবেন।

এদিকে এবারও দুই দফায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা। প্রথম দফা ১২ জানুয়ারি থেকে ১৪ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয় দফা ১৯ জানুয়ারি থেকে ২১ জানুয়ারি ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। দুই দফারই শেষদিন অনুষ্ঠিত হবে তাবলিগ জামাতের প্রধান আকর্ষণ আখেরি মোনাজাত। তবে এবার আখেরি মোনাজাত কে পরিচালনা করবেন তা এখনো নির্ধারিত হয়নি। গত কয়েক বছর ধরে ভারতের মাওলানা সাদ বিশ্ব ইজতেমায় বয়ান ছাড়াও আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করে আসছেন। কিন্তু এবার তাঁকে নিয়ে নানা বিতর্ক সৃষ্টি হওয়ায় বিশ্ব ইজতেমায় বয়ান ও মোনাজাত পরিচালনা নিয়ে অনেকটা অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email