শনিবার, ২৩শে জুন, ২০১৮ ইং ৯ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ট্যুরের আগেই কোচ নিয়োগ?

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) শেষ করে বাংলাদেশে অবস্থান করছেন গ্যারি কারস্টেন। তিন দিনের সফরে ঢাকায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই অধিনায়ক। বাংলাদেশ দলের পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া এই কিংবদন্তি মূলত কোচ খুঁজতে সাহায্য করবেন। তিনি বোর্ডের ‘ইন্টারনাল অডিটর’ হিসেবেও কাজ করবেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

ভারতের বিশ্বকাপজয়ী কোচের ভূমিকা নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন।

সোমবার মিরপুরে তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ট্যুরের আগে এই প্রক্রিয়া শেষ করা। এরপর কাজের প্রক্রিয়া বা পরিস্থিতি অনুসারে আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো। আমাদের কাছে যে নামগুলো আছে, তা আমরা তার (গ্যারি) কাছে পাঠিয়েছি। উনি বাংলাদেশে এসে কাজ করছেন, এ জন্য হয়তো মনে হচ্ছে উনি এখন কাজ করছেন। উনি কিন্তু ভারতে থাকতেও কাজ করেছেন। আমরা যে সব নাম তার কাছে পাঠিয়েছিলাম তাদের সঙ্গে উনি যোগাযোগ করছেন। উনার নিজের তালিকায় থাকা কোচদের সঙ্গেও তিনি আলোচনা করছেন।

এদিন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনসহ তিন সিনিয়ার ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম এবং তামিম ইকবালের সঙ্গে বৈঠকে করেছেন কারস্টেন।

টিম পর্যালোচনার পাশাপাশি যথাযোপযুক্ত কোচ পেতেও কাজ করবেন আইপিএলের দল রয়্যাল চ্যালের্ঞ্জাস বেঙ্গালুরুর এই কোচ।
কারস্টেনের সঙ্গে বিসিবির চুক্তির বিষয়ে সুজন বলেন, আসলে গ্যারি কারস্টেন আপাতত বাংলাদেশ দলের একটি ‘ইন্টারনাল অডিট’ করছেন। সামনে আইসিসির যে সব কম্পিটিশন আছে (আইসিসি বিশ্বকাপ, ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি) এগুলো সামনে রেখে কিভাবে বাংলাদেশ দলকে উন্নত করা যায়, কোন কোন জায়গায় কাজ করতে হবে, এই বিষয়গুলো পর্যালোচনা করছেন। তিনি বোর্ডকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিবেন। একই সঙ্গে কোচ নিয়োগ নিয়েও তিনি কাজ করছেন। আমরা ইতোমধ্যে কয়েকজন কোচের নাম দিয়ে সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছি, গ্যারি কারস্টেনের কাছেও কিছু নাম আছে। আপাতত দলের পরিস্থিতি পর্যালোচনার পর তিনি হয়তো তার পরামর্শ আমাদের দেবেন যে, কোন এরিয়াতে আমাদের বেশি কাজ করতে হবে এবং এরপর তিনি বলবেন কোন কোচ আমাদের জন্য বেশি কার্যকর হবেন।

তবে কোচ নিয়োগের চেয়েও বিসিবি বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে টিম পর্যালোচনার উপর। কারস্টেনও তাই করছেন। বিসিবির ইচ্ছা দীর্ঘ মেয়াদের জন্য তাকে নিযুক্ত করা। কিন্তু তিনি ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত মাশরাফিদের সাথে কাজ করার ইচ্ছা জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email