শনিবার, ২৩শে জুন, ২০১৮ ইং ৯ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

প্রতিদিন একটি ডিমে ঝুঁকিমুক্ত হৃদযন্ত্র

news-image

লাইফস্টাইল ডেস্ক : আধুনিক জীবন মানুষকে দিয়েছে স্থূলতা আর হৃদরোগ। দ্বিতীয়টির প্রকোপ বেশ বেড়েছে। হৃদরোগের ঝুঁকি কমিয়ে বিভিন্ন ধরনের রোগ, স্ট্রোক এবং হার্ট ফেইলুওর থেকে বাঁচার জন্য স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের চর্চা জরুরি। কিন্তু সেখানেই আধুনিক মানুষের যত সমস্যা। তবে মাত্র একটা জিনিস প্রতিদিন খেলে আপনার হৃদরোগের ঝুঁকি অনেকটাই কমে আসে বলে মনে করেন বিজ্ঞানীরা। বিশেষ কিছু নয়। প্রতিদিন মাত্র একটা করে ডিম খেতে হবে। তাকেই আপনি আপনি অন্যদের চেয়ে অনেকটা ঝুঁকিমুক্ত।

এমনিতই স্বাস্থ্য সচেতনরা প্রতিদিন ডিম খান। কিন্তু এতে যে হার্টের ওপকারিতা আছে তা হয়তো সবাই চিন্তা করেন না। আবার অনেক সময়ই কোলেস্টেরলপূর্ণ হিসেবে ডিমকে অস্বাস্থ্যকর বলে গণ্য করা হয়। কিন্তু সব আলোচনা ও গবেষণায় শেষে কোনভাবেই ডিমের কার্যকারিতাকে অস্বীকার করা যাচ্ছে না।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, সপ্তাহে ১২টি ডিম খেলে ডায়াবেটিস আক্রান্ত হননি এমন এবং টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্তরা কার্ডিওভাসকুলার রোগ থেকে বেশ ঝুঁকিমুক্ত থাকেন। ডিমে থাকে ৯ ধরনের অতি জরুরি অ্যামাইনো এসিড। এতে আরো আছে লুটেইন। এটি বয়স্কালের মস্তিষ্ককে কার্যকর রাখে। প্রতিদিন একটা করে ডিম স্ট্রোকের ঝুঁকি ১২ শতাংশ কমিয়ে আনে।

নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে আরো চমকপ্রদ তথ্য। প্রতিদিন একটি করে ডিম খেলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে আসতে থাকে। গবেষকদের দাবি, চীনের যে বয়স্ক ব্যক্তিরা প্রতিদিন একটি করে ডিম খান তাদের কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকি অন্যদের চেয়ে অনেক কম।

বিশেষজ্ঞরা ৩০-৭৯ বছর বয়সী ৫ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য পর্যবেক্ষণ করেছেন প্রায় ৯ বছর ধরে। এরা সবাই প্রতিদিন একটি করে ডিম খেয়েছেন। পর্যবেক্ষণে স্পষ্ট হয়েছে যে, এই মানুষগুলোর কার্ডিওভাসকুলার ডিজিসের ঝুঁকি অন্যদের চয়ে অনেক কম ছিল।

যারা ডিম খান তাদের রক্তক্ষরণজনিত স্ট্রোকের ঝুঁকিও কমে ২৬ শতাংশ। হার্ট জার্নালে প্রকাশিত চাইনিজ-ব্রিটিশ বিজ্ঞানীদের গবেষক দল জানায়, ডিমের কারণে কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুঝুঁকি কমে আসে ১৮ শতাংশ। এ ছাড়া হেমারহ্যাজিক স্ট্রোকের সম্ভাবনা কমে ২৮ শতাংশ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, প্রতিবছর কার্ডিওভাসকুলার ডিজিসে ভুগে মারা যায় ১৭.৭ মিলিয়ন মানুষ। এদের ৮০ শতাংশের মৃত্যু ঘটে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের কারণে। ধূমপান করা, যথেষ্ট ব্যায়াম না করা, অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ এবং বেশি লবণ রয়েছে এমন খাবার খেলে ঝুঁকি বাড়ে।

কাজেই যারা ওষুধ ছাড়াই কার্ডিওভাসকুলার ডিজিস থেকে দূরে থাকতে চান তারা প্রতিদিন একটা করে ডিম খেতে পারেন, এ পরামর্শই দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট গবেষণার বিজ্ঞানীরা।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Print Friendly, PDF & Email