বুধবার, ২৭শে মার্চ, ২০১৯ ইং ১৩ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গার আইলহাস গ্রামে মুদি দোকানীকে কুপিয়ে হত্যা

news-image

আলমডাঙ্গা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি : আলমডাঙ্গার প্রত্যন্ত আইলহাস গ্রামের মাঠে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে হাসিবুল নামের এক মুদি ব্যবসায়ীকে। শুক্রবার রাত ১১টার পর থেকে নিখোঁজ থাকার পর আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে তার ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

ঘোলদাড়ি পুলিশ ক্যাম্পের আইসি ইসলাম হোসেন জানান, নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে তাকে সাধ্যমত খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে। আজ সকালে ঘোলদাড়ি গ্রামের মৃত হারান মন্ডলের ছেলে ছানোয়ার হোসেন তার শ্যালো মেশিন চালাতে গিয়ে বেগর মাঠে হাসিবুলের ক্ষতবিক্ষত লাশ দেখতে পান।

নিহত হাসিবুল ইসলামের স্ত্রী হীরা খাতুন জানান, শুক্রবার রাত ১১টার দিকে একটি মোবাইল ফোন পেয়ে তিনি তাদের বাড়ির সাথের মুদি দোকান থেকে বের হয়ে যান। মোবাইলে কথা বলতে বলতে তিনি গ্রাম থেকে বেরিয়ে ঘোলদাড়ি মাঠের দিকে চলে যান। পরে আর তিনি ফিরে আসেননি। রাত ১২ টার পর তার মোবাইলফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়।

তিনি জানান, দুইমাস আগে আইলহাস গ্রামের মৃত শুকুর আলীর ছেলে আফিল তাকে তিনদিন হুমকি দিয়ে বলে যান, তার স্বামীকে সাবধান করে দিতে। আফিল অভিযোগ করেন, হাসিবুল তার স্ত্রীর দিকে নজর দিয়েছে।

নারীঘটিত ব্যাপারে হাসিবুলকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। হাসিবুল আইলহাস গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।

লাশ উদ্ধারের পর পুলিশ আফিলের বাড়িতে অভিযান চালায়। তবে এ ঘটনার পরপরই আফিল গ্রাম থেকে পালিয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

স্বাধীনতা দিবস অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদের রাজাকার বললেন তিনি

অর্থমন্ত্রী হঠাৎ গাড়িবহর থামিয়ে তরমুজ বিক্রেতাকে ডাকলেন

‘গণহত্যার স্বীকৃতি পেতে দেরি হয়েছে স্বাধীনতা বিরোধীদের জন্য’

স্বাধীনতা স্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে ফরিদপুরে বিএনপি নেতাদের ওপর হামলা

রেল লাইনে গাড়ি রেখে চালক আড্ডায় মগ্ন, অতঃপর…

মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ: ৬ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

স্ত্রী-শ্বশুর ‘আপোষ’ করতে চান হিরো আলমের সঙ্গে

মৌলভীবাজারে একই পরিবারের পাঁচজনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

সেই চেয়ারম্যানের দাবি, আবেগে জড়িয়ে ধরেছিলেন

চেয়ারম্যান হলেন যারা বরিশালের ৯ উপজেলায়

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, মাদক না ছাড়লে পরিণতি ভয়াবহ

আনন্দ মিছিলে হামলা করে যুবলীগ কর্মীকে হত্যা!