রবিবার, ১৯শে আগস্ট, ২০১৮ ইং ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘মেসির বিপক্ষে খেলতে হবে না; এতেই আমি খুশি’

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : তার নাম লিওনেল মেসি। বিশ্বকাপ জিতুক আর নাই জিতুক, ফুটবল ইতিহাসে মেসি একজনই। শিরোপা না জিতেও নিজেকে নিয়ে গেছেন সর্বকালের সেরাদের কাতারে। সেই মেসির সঙ্গে একই দলে খেলতে পারা বিশ্বের সকল উঠতি ফুটবলারদের জন্য স্বপ্নের। তার বিপক্ষে খেলাটাও কম গর্বের নয়। তাদেরই একজন সেভিয়া থেকে বার্সেলোনায় নাম লেখানো ক্লেমো লংলে। তার খুশির অবশ্য আরও একটা কারণ আছে।

চলতি মাসের শুরুতে ৩ কোটি ৬০ লাখ ইউরো ট্রান্সফার ফিতে ক্যাম্প ন্যুতে এসেছেন এই ডিফেন্ডার। লিওনেল মেসি ও বার্সেলোনার বিপক্ষে আর খেলতে হবে না বলে তার খুশি আর ধরে না। বার্সা টিভিকে লংলে বলেন, ‘এখানে আসতে পেরে আমি খুবই খুশি। কারণ এখন আমাকে তার (মেসি) বিপক্ষে খেলতে হবে না।’

ফরাসি এই সেন্টার-ব্যাক মনে করেন, বার্সেলোনার ঐতিহ্য এবং দারুণ সব খেলোয়াড়ের সহযোগিতায় তিনি দ্রুতই মানিয়ে নিতে পারবেন। খেলোয়াড়দের কথা উঠতেই যথারীতি তার মুখে শোনা গেল মেসির স্তুতি, ‘মেসি বিশ্বের সেরা। তিনি সহজেই ম্যাচ নিয়ন্ত্রণ করেন। যে কোনো মুহূর্তে যেখান থেকে চান সেখান থেকেই তিনি গোল করতে পারেন। আপনি যখন দারুণ সব খেলোয়াড়দের সঙ্গে খেলবেন, তখন মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপারটা কিছুটা হলেও সহজ হয়ে ওঠে।’

লংলা এমন সময়ে বার্সেলোনায় এসেছেন, যখন ক্লাবটির চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্তাসে চলে গেছেন সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এই পর্তুগিজ সুপারস্টারের বিপক্ষে খেলার সুযোগ আছে তার। ইতিমধ্যেই বার্সেলোনাকে ভালোবেসে ফেলেছেন তিনি, ‘এখানে প্রতিটি খেলোয়াড়ই শীর্ষ পর্যায়ের। বার্সেলোনা শহরটাও দুর্দান্ত সুন্দর। আর এ কারণেই বার্সায় চুক্তি করলে কেউ কখনই ছেড়ে যেতে চায় না।’