রবিবার, ১৯শে আগস্ট, ২০১৮ ইং ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ভিকারুননিসার ৩৫০ ছাত্রীর অভিনব প্রতিবাদ, পরীক্ষার খাতায় ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: সড়ক থেকে সরে দাঁড়ালেও প্রতিবাদ থেকে পিছু হটেনি রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা। প্রতিবাদের মাধ্যম হিসেবে এবার তারা বেছে নিয়েছে পরীক্ষার খাতা। দশম শ্রেণির প্রায় ৩৫০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষার খাতায় ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ লিখে পরীক্ষার হল থেকে বের হয়ে গেছে।

ভিকারুননিসার শিক্ষার্থীরা জানায়, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ‘সড়ক দুর্ঘটনা- আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে গেছে,বেশ কজন শিক্ষার্থীকে নিয়ে যাওয়া হয় কিছু না জানিয়েেই। কলেজের শিক্ষকদের চাপে পড়ে সেখানে যেতে তারা বাধ্য হয়েছিল। নিরাপদ সড়কের দাবিগুলো পুরোপুরি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন থেকে সরে দাঁড়ানোর পক্ষপাতি তারা ছিল না। এরই প্রতিবাদে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার খাতায় এই স্লোগান লিখে হল বেবিয়ে আসে এবং জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বেরিয়ে আসে। রাজধানীর স্বনামধন্য এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ঘটনাটি ঘটে গত মঙ্গলবার।

ভিকারুননিসা নুন কলেজের একজন শিক্ষক নাম না প্রকাশের শর্তে জানান, গত ৬ আগস্ট নগর ভবনে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে ‘সড়ক দুর্ঘটনা- আমাদের করণীয়’ শিরোনামে এক মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। ওই অনুষ্ঠানে মেয়রের আমন্ত্রণে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৪২১টি স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা নগর ভবনে যায়। অনুষ্ঠানে ভিকারুননিসার কিছু শিক্ষার্থীকেও নিয়ে যাওয়া হয়। সড়ক ছেড়ে ক্লাসে ফিরে যাওয়ার ঘোষণা দেওয়া ওই অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগে বিষয়টি ছাত্রীদের জানানো হয়নি। এ ঘটনার প্রতিবাদেরই দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার খাতায় লিখেছে ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’।

শিক্ষার্থীদের কয়েকজন জানায়, নগর ভবনের সেই অনুষ্ঠানে কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী যোগ দিয়ে ঘোষণা দেয়, তারা ভিকারুননিসা নূন স্কুল ও কলেজের সব শাখার শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে নিরাপদ সড়কের দাবির আন্দোলন থেকে সরে দাঁড়িয়েছে। অথচ যারা সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয় তারা আন্দোলনে থাকা অন্য শিক্ষার্থীদের মত নেয়নি।

এদিকে নগর ভবনের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, কলেজের কিছু শিক্ষক ও অধ্যক্ষের চাপে তারা ওই অনুষ্ঠানে যেতে বাধ্য হয়। অনুষ্ঠানটি কেন ও কি, তা শিক্ষকরা তাদের নিয়ে যাওয়ার আগে জানাননি। অনুষ্ঠান নিয়ে বলেন, সব শিক্ষার্থীই আন্দোলন স্থগিতের পক্ষে। তোমাদেরও এর পক্ষে থাকতে হবে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ফারহানা খানম তাদের ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে চাপ দেন।

এ ঘটনাটির প্রতিবাদে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার খাতায় এই স্লোগান লিখে পরীক্ষার হল থেকে বেরিয়ে আসে।

ভিকারুননিসা নুন কলেজের একজন প্রাক্তন শিক্ষার্থী এ বিষয়ে জানতে চেয়ে শিক্ষিকা ফারহানা খানমকে ফোন করলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এবং ওই প্রাক্তন শিক্ষার্থীকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাবেক শিক্ষার্থীর সঙ্গে ফারহানা খানমের সঙ্গে এই ফোনালাপের অডিও ক্লিপ এবং ভিকারুননেসার ছাত্রীদের পরীক্ষা হল থেকে বেরিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে গাওয়া জাতীয় সঙ্গীতের ভিডিও ছাড়িয়ে পড়েছে।

ভিকারুননিসা নুন কলেজের পরবর্তী প্রধান শিক্ষিকা হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকা ফারহানা খানমের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলতে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি। পূর্বপশ্চিম