বুধবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

হোটেলে অন্তঃরঙ্গ অবস্থায় কলেজ ছাত্র-ছাত্রীরা! অতঃপর…

news-image

এইতো কিছুদিন আগের কথা ভারতের সিউড়ির হাটজনবাজারে অসামাজিক (মধুচক্রের) কাজের অভিযোগে ১২ জন পুরুষ ও নারীকে আটক করা হয়েছিল। গৃহকর্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল। নিজের বাড়িতেই অবৈধ এই কাজটি করছিলেন তিনি। প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ও নারীরা তার বাড়ি গিয়ে ব্যবসা চালাতেন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এই রেশ কাটতে না কাটতেই অর্থাৎ ১৫ দিন পরেই ফের মধুচক্রের হদিশ সিউড়িতে।

এবার মধুচক্রের সন্ধ্যান মিললো সিউড়ির বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মহিলা থানার নিকটবর্তী একটি বেসরকারি হোটেলে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, কলেজ ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে নাবালিকারাও এই অসামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিল। এ ঘটনা পুলিশকে অনেক বার জানিয়েও কোনো কাজ হয়নি বলেও জানান তারা।

জানা গেছে, খুবই কম টাকায় হোটেলের রুম গুলো ভাড়া দেয়া হয়। অল্প টাকায় সেই ঘর ভাড়া নেয় কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরাই। মূলত তারাই সেখানে দেহব্যবসার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে।

বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) অতর্কিতে ওই হোটেলে অভিযান চালায় পুলিশ। সে সময় ৭ তরুণী ও ৬ জন যুবককে আটক করেছে পুলিশ। পাশাপাশি সিল করে দেয়া হয়েছে হোটেলটি, এ ঘটনায় হোটেলের দুই কর্মীকেও আটক করা হয়।

সূত্রে জানা যায়, আটককৃতদের জেরা করেই এর মূল চক্রের সন্ধ্যান খুঁজতে পুলিশ। মহিলা থানা থেকে এতো কাছের দূরত্বে কীভাবে দিনের পর দিন এই কাজ চলত, ইতোমধ্যে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।