রবিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আশরাফুলের ফিটনেস দেখে চোখ কপালে!

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : মাঠে তার কাণ্ড দেখে চোখ কচলে দেখার মতোই অবস্থা হলো অনেকের। এটা কি মোহাম্মদ আশরাফুল? যিনি পাঁচ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ছিলেন! এই আশরাফুল গত জাতীয় লিগের পর প্রায় ৫ মাস ধরে ক্রিকেটের বাইরে আছেন! সাবেক ‘লিটল মাস্টারের’ ফিটনেস দেখে থ হয়ে গেলেন বিসিবির অনেক কর্মকর্তা। বিসিবির উদ্যোগে আয়োজিত এই ফিটনেস টেস্টে দারুণভাবে পাস করে গেলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার স্বপ্ন দেখা ‘আশার ফুল’।

সম্প্রতি জাতীয় লিগে খেলা প্রতিটি ক্রিকেটারের ফিটনেস টেস্ট নেওয়া শুরু করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ইতোমধ্যে রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা দলের ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট নেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার সকাল থকে নেওয়া হয়েছে ঢাকা মহানগর ও ঢাকা বিভাগের ক্রিকেটারদের। এই টেস্টে ১১.৪ স্কোর মোহাম্মদ আশরাফুল। পেছনে ফেলেছেন শামসুর রহমান (১১.২) ও মার্শাল আইয়ুবকে (১০.৭)।

গত মাসে নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেয়েছেন আশরাফুল। তিন মাসে ওজন কমিয়েছেন ৮ কেজি। ৩৪ বছর বয়সে ক্রিকেটাররা যখন অবসরে যান, তখন তিনি আবারও জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন দেখছেন। যে কারণে গত পাঁচ বছর নিজ দায়িত্বেই ফিটনেস ঠিক রাখতে হয়েছে। আজকের বিপ টেস্টে আশরাফুলের চেয়ে বিপ টেস্টে ভালো করেছেন পেসার রকিবুল (১২.১৪)। ধারাবাহিক খেলার মধ্যে থাকা সৈকত আলী ও জাবিরের স্কোর আশরাফুলের সমান।

কীভাবে এই অসাধ্য সাধন করলেন আশরাফুল? সংবাদমাধ্যমকে লিটল মাস্টার বললেন, ‘জাতীয় লিগ খেলব বলে গত তিন মাস ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছি। চেয়েছি আমার ফিটনেস যেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মানের হয়। মানসিকভাবে অনেক শক্তিশালী হতে হয়, ফিটনেস নিয়ে অনুশীলনও করতে হয়। গত আড়াই মাসে ভাত খাওয়াটা একেবারে কমিয়ে দিয়েছি। শুধু ডায়েট করলেই হবে, এটা মনে করি না। ফিটনেস যদি কাঙ্খিত পর্যায়ে নিতে হয় তাহলে সেভাবে অনুশীলন করতে হবে। জিম-রানিংয়ের সঙ্গে সবজি বা অন্যান্য খাবার খাচ্ছি। খেতে পছন্দ করি, কিন্তু এবার অনেক নিয়ন্ত্রণ করেছি।’

তবে এখানেই না থেমে আশরাফুলের লক্ষ্য নিজেকে আরও ফিট করে তোলা, ‘এখন আমরা প্রায় সবাই সচেতন। আজ ১১.৪ এসেছে, বিপ টেস্টে যেটি খুবই ভালো। আশা করি সামনে আরও উন্নতি হবে। আমি আমার চেষ্টা চালিয়ে যাব।’