বৃহস্পতিবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

দুদিন পরই সেতুটি উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

news-image

উদ্বোধনের আগেই ধসে গেছে লালমনিরহাটের দ্বিতীয় তিস্তা সেতুর সংযোগ সড়ক। শুক্রবার সকালের দিকে সড়কটি ধসে যায়। ফলে রংপুর থেকে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

আগামী রোববার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতুটি উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন কালীগঞ্জের ইউএনও রবিউল হাসান। ইতোমধ্যে মেরামতের কাজ শুরু করেছে কালীগঞ্জ প্রকৌশল বিভাগ।

জানা গেছে, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও ব্যবসা বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষে রাজধানী ঢাকা এবং বিভাগীয় শহর রংপুরের সঙ্গে লালমনিরহাটের কয়েকটি উপজেলার দূরত্ব কমিয়ে আনতে কাকিনা-মহিপুর এলাকায় দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেয় সরকার। ফলে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ও রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার মহিপুর এলাকায় তিস্তা নদীর ওপর ২০১২ সালের ১২ এপ্রিল এ সেতুর নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরই মধ্যে মূল সেতুর নির্মাণকাজ সম্পন্ন করে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স নাভানা কনস্ট্রাকশন কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশল দফতরের কাছে তা হস্তান্তর করেন।

আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতুটি উদ্বোধন করার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

এজন্য সেতুর উত্তর পাশে মঞ্চ প্রস্তুতের কাজও চলছে। কিন্তু এরই মধ্যে মূল সেতুর উত্তর দিকে ইচলী এলাকার একটি ব্রিজের মোকা ও সংযোগ সড়ক ধসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ নেওয়াজ খান বলেন, তিস্তার পানির চাপে সংযোগ সড়কের একটি ব্রিজের মোকা ধসে গেছে। আমরা তা দ্রুত মেরামতে কাজ করে যাচ্ছি।