শনিবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ১লা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জামায়াতকে বয়কটে আওয়ামী লীগের সহযোগিতা চাইলেন বিএনপির দুই নেতা

news-image

নিউজ ডেস্ক।। ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জামায়াতকে রাজনীতি থেকে বয়কটে আওয়ামী লীগের সহযোগিতা চেয়েছেন বিএনপির দুই নেতা। কলকাতায় ভারত-বাংলাদেশ সংলাপে উপস্থিত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, কৃষক লীগ নেতা এটিএম আনিসুর রহমান বুলবুলকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি নেতা খন্দকার আহসান হাবিব ও ডা. কাজী মাজহারুল ইসলাম দোলন বলেছেন, ‘আসুন আমরা সবাই মিলে জামায়াতকে বয়কট করি।’

ভারতের প্রভাবশালী বাংলা দৈনিক যুগশঙ্খে মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঠিক যেন উলটপুরাণ। কলকাতায় ভারত-বাংলাদেশ সংলাপে একশো আশি ডিগ্রি ঘুরে চিনপ্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগকে বিএনপির আহ্বান, ‘ আসুন আমরা সবাই মিলে জামায়াতকে বয়কট করি।’

গত রোববার কলকাতার একাডেমি অব ফাইন আর্টসে ইন্দো-বাংলাদেশ কালচারাল সেন্টার ও গ্লোবাল মাইনোরিটি ভয়েস ওই সংলাপের আয়োজন করেছিল। সেখানে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির নেতারা ছাড়াও দুই দেশের বেশ কজন বুদ্ধিজীবী অংশগ্রহণ করে।

পত্রিকাটি লিখেছে, বাংলাদেশর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে বিবাদমান দুই যুযুধান রাজনৈতিক দলকে একমঞ্চে এনে নি:সন্দেহে কৃতিত্বের দাবি রাখেন উদ্যোক্তরা।

এদিনের সংলাপে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের প্রশ্নে অতীত ও বর্তমানে জামায়াতকে বরাবরের মতোই দায়ী করে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সংগঠনিক সম্পাদক ও সাংসদ খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এবং কৃষক লীগের নেতা এটিএম আনিসুর রহমান বুলবুল। তারা বলেন,‘জামায়াতের দোসর বিএনপি এই অপকর্মের উসকানিদাতা।’

এই অভিযোগের জবাব দিতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তথা বিএনপি নেতা খন্দকার আহসান হাবিব বলেন, ‘আমরা দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নির্দেশে এই সংলাপে অংশগ্রহণ করেছি। ঢাকায় এটা সম্ভব হত না। কারণ আওয়ামী লীগ খুন,গুমের রাজনীতি করছে। জামায়াত নির্বাচনে কোনও বিষয় নয়। কারণ তাদের নিবন্ধন নেই। সারা দেশে তাদের এক শতাংশ ভোটও নেই। জামায়াতকে বাংলাদেশের মানুষ চান না। আওয়ামী লীগ এখন আমাদের দোষ দিচ্ছে। কিন্তু একটা সময় তারাই জামায়াতের সঙ্গে ঘর করেছে। আমাদের আহ্বান আসুন সব কিছু নতুন করে শুরু করি। জামায়াতকে বয়কট করি।’ উৎস: আমাদের সময়.কম।