রবিবার, ১৬ই জুন, ২০১৯ ইং ২রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কারাগার থেকে মুক্ত নওয়াজ ও তার মেয়ে

news-image

অনলাইন ডেস্ক: অবশেষে কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ,তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ এবং মেয়ে জামাই মোহাম্মদ সফদার।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম ডনের খবরে বলা হয়, গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় আদিয়ালা কারাগার থেকে তাদের মুক্তি দেওয়া হয়।

এর আগে বুধবারই তাদের মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। চলতি বছর নওয়াজ শরিফ, তার মেয়ে এবং জামাইয়ের বিরুদ্ধে কারাদণ্ড ঘোষণা করেন দুর্নীতিবিরোধী আদালত।

গত জুলাই মাসে দুর্নীতির দায়ে নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। অপরদিকে তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে সাত বছর ও সফদারকে এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য লন্ডন থেকে লাহোরে ফেরার পর বিমানবন্দরেই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বুধবার পাকিস্তানের ইসলামাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি আতহার মিনাল্লাহ বলেন, বেশকিছু অ্যাপার্টমেন্টের মালিকানায় নওয়াজের বিরুদ্ধে যে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছে তার পক্ষে কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেনি ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো।

নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং এক কোটি পাঁচ লাখ ডলার জরিমানা, তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে সাত বছরের কারাদণ্ড এবং ২৬ লাখ ডলার জরিমানা এবং মরিয়মের স্বামী সফদারকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।

এর আগে গত এপ্রিলে নওয়াজকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অযোগ্য ঘোষণা করেন সুপ্রিম কোর্ট। দুর্নীতিবিরোধী একটি আদালতে নওয়াজ শরিফ এবং তার পরিবারের ওই দুই সদস্যের বিরুদ্ধে আরও দুই দুর্নীতিবিরোধী মামলার শুনানি চলছে।

এ জাতীয় আরও খবর

২-০ গোলে কলম্বিয়ার কাছে হেরে কোপা শুরু আর্জেন্টিনার

১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সৌদি আরব!

এই আট কারণে আপনার শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যাওয়ার

এবারও জলজটে ডুববে ঢাকা

বাসায় আটকে দেহব্যবসা, কান্না শুনে দুই নারীকে উদ্ধার

বাবা মানে নির্ভরতার আকাশ আর নিঃসীম নিরাপত্তার চাদর: বাবা দিবস আজ

জন্মদিনে নায়কদের শুভেচ্ছা

অন্তঃসত্ত্বা অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে নিয়ে ‘তোলপাড়’

চোখের পানি ধরে রাখতে পারবেন না এই ভালোবাসার গল্পটি পড়ে

রাত ৪টা ১৫মিনিট ফজরের আজান দিচ্ছে পাশ ফিরে উঠতে যাবো, তখনই খেয়াল করলাম আমার মত একজন শুয়ে আছে…..

বোখারা শহরে এক স্বর্ণের দোকানদার ছিলো, ঘরে ছিলো তার সুন্দরী স্ত্রী। একদিন রাতে লোকটি ঘরে এসে দেখল তার স্ত্রী বসে-বসে কাঁদছে………….

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের মহৌষধ যে গাছটি, এবং এর ব্যবহার বিধি