শুক্রবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ওটা ধর্ষণ ছিল না, সম্মতিতেই হয়েছে সবকিছু!

news-image

ধর্ষণের অভিযোগে যথেষ্ট চাপে রয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তবে এবার নিজের সপক্ষে মুখ খুললেন তিনি। অপরাধের যেসব প্রমাণ দেখানো হচ্ছে, তাকে বানানো বলে দাবি করেছেন সিআরসেভেন। তিনি বলেন, ‘লাস ভেগাসে তখন যা হয়েছিল সেখানে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেনি। সেখানে যা হয়েছে তা সম্মতিতেই হয়েছে’।

২০০৯ সালে লাস ভেগাসে একটি হোটেলে রোনালদো তার সঙ্গে জোর করে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন বলে অভিযোগ করেন যুক্তরাষ্ট্রের ৩৪ বছর বয়সী নারী ক্যাথরিন মায়োর্গা । রোনালদো জানান, ২০১০ সালে আদালতের বাইরে তিন লাখ ৭৫ হাজার ডলারে তা মীমাংসা হয়।

এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন জার্মানির একটি সাপ্তাহিকে প্রকাশের পর, পত্রিকার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের হুমকি দিয়েছিলেন জুভেন্টাস তারকা। এরপরও সেই পত্রিকায় এ নিয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশিত হয়ে আসছে। এখন রোনালদোর পক্ষ থেকে ঘটনা স্বীকার করে নেয়া হলো পরোক্ষভাবে।

এরপরও ঘটনার সপক্ষে দায়ের করা নথিপত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পর্তুগীজ তারকা। সেই চুক্তির বিষয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, একটি গণমাধ্যম দায়িত্বহীনভাবে এমন সব তথ্য প্রকাশ করা যাচ্ছে, যা চুরিকৃত এবং ডিজিটাল উপায়ে সহজেই তৈরিকৃত নথির উপর প্রতিষ্ঠিত। যার গুরুত্বপূর্ণ অংশই পরিবর্তিত বা সম্পূর্ণ তৈরিকৃত। এখন দেখা যাক শেষ পর্যন্ত এই ধর্ষণের অভিযোগ কোন দিকে গড়ায়।