বৃহস্পতিবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং ৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়’ লিখে যুবকের আত্মহত্যা

news-image

স্ত্রী বাবার বাড়ি থেকে না আসায় অভিমানে চিরকুট লিখে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে খোরশেদ আলম রিংকু (৩০) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন।বৃহস্পতিবার শহরের কৃষি ব্যাংক সড়কের গেঞ্জি হাটার ঢালি মঞ্জিলে সানসিটি নামের একটি টেইলারিং কারখানা থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তার হাতে লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়।

রিংকু শহরের দক্ষিণ দেনায়েতপুর গ্রামের নুরুল হক মিস্ত্রি বাড়ির মৃত মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে। রিংকু শহরের সানসিটি নামের একটি টেইলারিং দোকানে নকশার কাজ করতেন।৫ বছর আগে বিদেশে গিয়ে আদম ব্যাপারীর খপ্পরে পড়ে সর্বস্ব খুইয়ে বাড়ি চলে আসে রিংকু। এর পর পারিবারিক অশান্তি শুরু হয়। সে সময় রিংকু একবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ৪ বছর আগে রিংকু প্রেম করে ঢাকার এক মেয়েকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে দুই বছরের একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। বাসায় স্ত্রীর সঙ্গে তার প্রায়ই ঝগড়া হতো। দুই দিন আগে ঝগড়া করে রিংকু বাড়ি থেকে ওই টেইলারিং কারখানায় চলে আসেন। বুধবার স্ত্রী তাকে বাড়িতে নেয়ার জন্য গেলেও সে যায়নি। এসব কারণেই সম্ভবত ওই যুবক আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। রায়পুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোলাইমান চৌধুরী বলেন, ছাদের ওপরে একটি কক্ষে মোটা রশি দিয়ে আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রিংকুর লাশ উদ্ধার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে হাতের লেখা একটি চিরকুট পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, চিরকুটে লেখা রয়েছে ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। আমি হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা করলাম’। তার পরেও ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।