রবিবার, ১৬ই জুন, ২০১৯ ইং ২রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘ব্যাগ নিয়ে দৌড়ে চলন্ত বাসে উঠে পড়লে, আমিও পেছন পেছন সেই বাসে উঠে পড়ি’ অতঃপর…

news-image

ঢাকার রাস্তায় ছিনতাই নতুন ঘটনা নয়। অনেকেই এসব ঘটনায় আর সামনে এগোতে চান না। ঢাকার রাস্তায় ধাওয়া করে ছিনতাইকারী ধরে পুলিশে দিয়েছেন অন্তরা রহমান নামের এক সাহসী নারী। ঘটনার শুরুটা অগাস্ট মাসের ১৭ তারিখে। বিবিসি বাংলার কাছে সেই নাটকীয় ঘটনার বর্ণনা করছিলেন অন্তরা রহমান।
বনশ্রীর বাসা থেকে যাত্রাবাড়ীতে আত্মীয়ের বাসায় যাচ্ছিলেন বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মী অন্তরা রহমান। যাত্রাবাড়ীর জনপদের রোডে রিক্সায় করে পার হচ্ছিলেন। এ সময় একজন ছিনতাইকারী তার হাতের ব্যাগটি নিয়ে দৌড় দেয়।

কিন্তু ভয় না পেয়ে অন্তরা রহমানও সেই ছিনতাইকারীর পেছনে ধাওয়া করেন। কিছুদূর গিয়ে সেই ছিনতাইকারী একটি চলন্ত বাসে উঠে পড়লে অন্তরাও পেছন পেছন সেই বাসটিতে উঠে পড়েন।

অন্তরা রহমান বলছেন, ”পুরো বাসটি খালি ছিল। আমি বাসে উঠে ড্রাইভারকে জিজ্ঞেস করলাম এখানে একটি লোক উঠেছে কিনা। তারা বলে, আমাদের গাড়িতে ওঠেনাই, হয়তো পেছনের বাসে উঠেছে। কিন্তু পেছনের দিকে বসে থাকা একটি লোকের প্যান্ট দেখে আমার সন্দেহ হলো।”
”কাছে গিয়ে দেখি, সেই ছিনতাইকারী আমার ব্যাগের ওপর বসে আছে আর মোবাইলটা পায়ের নীচে রেখেছে। আমি তাকে ধরে চিৎকার করলেও বাস চালক বাসটি চালিয়ে যাচ্ছিল। চিৎকার শুনে কয়েকজন ছেলে এগিয়ে এসে বাসটি থামায়।”

”সে সময় সেই চোর বলে আমাকে ছেড়ে দেন, আমি কালকেই কারাগার থেকে ছাড়া পেয়েছি। কিন্তু আমি মনে করলাম, গতকাল মুক্তি পেয়েই যে আজ অপরাধ করতে পারে, তাকে ছাড়লে সে আরো অপরাধ করবে।”

”তখন সবার সহযোগিতায় তাকে যাত্রাবাড়ী থানায় নিয়ে গেলাম। সেখানে আমি নিজেই বাদী হয়ে একটি মামলাও করলাম।” তিনি বলছেন। এই সাহসিকতার পুরস্কারও পেয়েছেন অন্তরা রহমান। মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ সভায় তাকে পুরস্কৃত করেছে পুলিশ।

এ জাতীয় আরও খবর

২-০ গোলে কলম্বিয়ার কাছে হেরে কোপা শুরু আর্জেন্টিনার

১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সৌদি আরব!

এই আট কারণে আপনার শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যাওয়ার

এবারও জলজটে ডুববে ঢাকা

বাসায় আটকে দেহব্যবসা, কান্না শুনে দুই নারীকে উদ্ধার

বাবা মানে নির্ভরতার আকাশ আর নিঃসীম নিরাপত্তার চাদর: বাবা দিবস আজ

জন্মদিনে নায়কদের শুভেচ্ছা

অন্তঃসত্ত্বা অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে নিয়ে ‘তোলপাড়’

চোখের পানি ধরে রাখতে পারবেন না এই ভালোবাসার গল্পটি পড়ে

রাত ৪টা ১৫মিনিট ফজরের আজান দিচ্ছে পাশ ফিরে উঠতে যাবো, তখনই খেয়াল করলাম আমার মত একজন শুয়ে আছে…..

বোখারা শহরে এক স্বর্ণের দোকানদার ছিলো, ঘরে ছিলো তার সুন্দরী স্ত্রী। একদিন রাতে লোকটি ঘরে এসে দেখল তার স্ত্রী বসে-বসে কাঁদছে………….

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের মহৌষধ যে গাছটি, এবং এর ব্যবহার বিধি