মঙ্গলবার, ১১ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

একটি শিক্ষনীয় গল্প, সবাই একবার হলেও পড়ুন একটু কষ্ট করে…

news-image

একটি গরু জঙ্গলে ঘাস খাচ্ছিল। হঠাৎ তাকে একটি বাঘ আক্রম করল। গরুটি অনেক্ষন দৌড়ানোর পর উপায় না পেয়ে পুকুরে ঝাপ
দিল। মাত্র শুঁকিয়ে যাওয়া পুকুরটিতে কাঁদা ছাড়া কোন পানি ছিল না। গরুর পেছন পেছন বাঘটিও ঝাপ দিল। বাঘ ও গরু কাঁদায় গলা পর্যন্ত আটকে গেল। বাঘ রেগে মেগে বলে, “কিরে হারামী তুই আর লাফ দেয়ার জায়গা পেলি না? ডাঙায় থাকলে তোকে না হয় একটু কুড়মুড়
করে খেতাম। এখনতো দুজনেই মরব রে।”

গরু হেসে বলে, “তোমার কি মালিক আছে? বাঘ রেগে বলে, বেটা আমি হলাম বনের রাজা। আমার আবার মালিক কে। আমি নিজেইতো বনের মালিক। গরু বলে তুমি এখানেই দূর্বল। একটু পর আমার মালিক আসবে। এসে আমাকে এখান থেকে তুলে
নিয়ে যাবে। আর তোমাকে পিটিয়ে মারবে। বাঘ বড় বড় চোখ করে তাকিয়ে রইল।
ঠিকই সন্ধ্যা বেলায় গরুটির মালিক এসে বাঘটার মাথায় বাঁশ দিয়ে কয়েকটা বাড়ি দিয়ে মেরে গরুটিকে টেনে তুলল। গরু হাসতে
হাসতে বাড়ি চলে গেল আর বাঘটি মরে একা একা পড়ে রইল।

মূলকথাঃ আমরা যারা মালিকের উপর ভরসা করি আমাদের উপর যত অত্যাচার নির্যাতনই হোক না কেন, আমাদের মালিক ঠিকই
আমাদের রক্ষা করবে। হয়তো সন্ধ্যা পর্যন্ত একটু অপেক্ষা করতে হবে।
সুতরাং কখনো বিপদে পড়লে হতাশ না হয়ে আল্লাহ কে স্মরণ করুন, আর অপেক্ষা করতে থাকুন… আল্লাহ অবশ্যই সাহায্য করবে।