শুক্রবার, ১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এক মোটরবাইকে গোটা পরিবার!

news-image

আমাদের দেশে ভোট দেয়া বা না দেয়ার পুরো স্বাধীনতা পান ভোটাররা। আপনি কি জানেন, এমনও দেশ আছে যেখানে এই রকম করলে বিপুল জরিমানা দিতে হয়? আবার দক্ষিণ কোরিয়ার শিশুদের বয়স সবসময় এক বছর বেশি হয়ে থাকে। চলুন তাহলে বিশ্বের এমনই কিছু অদ্ভুত নিয়ম সম্বন্ধে জেনে নেওয়া যাক।

লা চানক্লা: ছোটদের নিয়মানুবর্তিতা শেখানোর অস্ত্র। লা চানক্লাকে নিয়ে ঠিক এমনটাই বলা হয়। এটা আসলে চপ্পল। লাতিন আমেরিকা এবং স্পেনে মা-ঠাকুমারা চপ্পল দিয়েই ছোটদের শাসন করে থাকেন। ইউরোপের বেশ কিছু দেশে যেখানে বাচ্চাদের শাসন করলে জেল পর্যন্ত যেতে হতে পারে, সেখানে ইউরোপেরই এক দেশে এরকম ব্যবস্থা চমকে দেয়।

ভোট না দিলে জরিমানা: নির্বাচন ঘিরে প্রতিটা মানুষের আলাদা মতামত থাকে। অনেকেই ভোট দেন না এবং সগর্বে ঘোষণাও করেন। কিন্তু জানেন কি অস্ট্রেলিয়ায় এমন করা মানা। কারণ ভোট না দিলে সেখানে জরিমানা করা হয়। যেমন সম্প্রতি তাসমানিয়ায় নির্বাচনে ৬,০০০ জন অংশ নেননি। তাঁদের ২৬ ডলার করে জরিমানা হয়েছে।

চার্চ ট্যাক্স: চার্চগুলোকে রাজনৈতিক প্রভাব থেকে দূরে রাখার জন্য ১৯৩৯ সালে অ্যাডলফ হিটলার এটা চালু করেন। এই আইন অনুযায়ী একজন আয়করদাতাকে তার মোট করের ৮-৯ শতাংশ চার্চ ট্যাক্স দিতে হয়। অস্ট্রিয়া, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, জার্মানি, আইসল্যান্ড, ইতালি, সুইডেনে এখনও এই আইন চালু রয়েছে।

টমোটো উৎসব: ফেব্রুয়ারি বা মার্চের শুরুতে ‘ব্যাটেল অফ অরেঞ্জ’ বা টমোটোউৎসব হয় উত্তর ইতালির শহর ইভরিয়ায়। একে অপরের দিকে কমলালেবু ছোড়েন অংশগ্রহণকারীরা। শোনা যায়, এটা প্রতীকী উৎসব। অতীতে রাজার হাত থেকে ভায়োলেটা নামে এক মেয়েকে বাঁচাতে পাথর ছোড়েন গ্রামবাসীরা। পাথরের প্রতীকই এখানে কমলালেবু।

এক বাইকে গোটা পরিবার: গোটা পরিবার চলেছে একটা বাইকে চেপে! এক সময়ে এই ছবিটা ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছিল। প্রচুর হাসাহাসিও হয়েছিল। খুবই বিপজ্জনক পরিস্থিতি। কিন্তু পাকিস্তানে এই ছবি মোটেই বিরল নয়। যদিও পাকিস্তানেও এটা বেআইনি। কারণ এতে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে।

বট্রাম রীতি: ইন্দোনেশিয়ার একটি রীতি বট্রাম। যেখানে একটি কলাপাতায় একসঙ্গে অনেকে বসে খাওয়াদাওয়া করেন। এতে মানুষের মধ্যে ঐক্য বৃদ্ধি পায় বলে বিশ্বাস করা হয়।

বয়স: বাংলাদেশ, ভারত, আমেরিকা বা অন্য কোনও দেশের ২ বছরের শিশুর সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ায় ২ বছরের শিশুর মধ্যে আসলে বয়সের পার্থক্য কিন্তু ১ বছর! কেন? কারণ দক্ষিণ কোরিয়ায় জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই শিশুদের বয়স ধরা হয় ১ বছর। ফলে বিশ্বের যে কোনও প্রান্তের যে কোনও বয়সের মানুষের চেয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার বাসিন্দাদের বয়স এক বছর বেশি হয়।

সূত্র: আনন্দবাজার