বুধবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় টকশোতে হামলার শিকার বিএনপি নেতা

news-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের নির্বাচনী টকশোতে এসে হামলার শিকার হয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ (বাঞ্ছারামপুর) আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী মেহেদী হাসান পলাশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি মহিলা কলেজে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যায় চ্যানেল২৪-এ ‘ভোটের মাঠে’ নামে সরাসরি সম্প্রচারের নির্বাচনী একটি টকশো অনুষ্ঠিত হয়। এতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর ও বিজয়নগর) আসনের সংসদ সদস্য র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সস্পাদক আল মামুন সরকার, জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহ জামাল রানাসহ আরও কয়েকজন সম্ভাব্য প্রার্থী অংশ নেন।

টকশোতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া হয়ে সারাদেশে মাদক যায় এবং এটি একটি সমস্যা বলে বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা পলাশ। অনুষ্ঠান সম্প্রচার শেষ হওয়ার পরপরই সেখানে উপস্থিত থাকা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার ওপর হামলা করেন বলে অভিযোগ পলাশের।

পরে সদর আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী তাকে উদ্ধার করে সার্কিট হাউজে নিয়ে যান। হামলাকারীরা পলাশের গাড়িটিও ভাঙচুরের চেষ্টা করে। এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য পলাশের মোবাইলে কল করলে বন্ধ পাওয়া যায়।

তবে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। টকশোতে ছাত্রলীগ ছাড়াও অন্যান্য দলের লোকেরা উপস্থিত ছিলেন। ওনি (পলাশ) মাদক নিয়ে বক্তব্য দেয়ায় উপস্থিত জনতা উত্তেজিত হয়ে পড়ায় এমপি মোকতাদির চৌধুরী তাকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে যান।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন খান জাগো নিউজকে বলেন, হামলার বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি। জাগোনিউজ