শুক্রবার, ১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

অর্থমন্ত্রীর সুর বদল

news-image

নির্বাচনে অংশগ্রহণের আভাস দিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, আমি নমিনেশন পেপার সাবমিট করবো। আমার ক্যান্ডিডেট যিনি হবেন, তিনি যদি বাদ পড়ে যান, তাহলে আমাকে দাঁড়াতে হবে।বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।নির্বাচনে দাঁড়াবেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে মুহিত বলেন, না না। আমি তো দাঁড়াবো না। ইটস মাই ডিসিশন। আমি নমিনেশন পেপার সাবমিট করবো তিনি বলেন, আমার প্রার্থী যিনি হবেন, তিনি বাদ পড়ে গেলে আমাকে দাঁড়াতে হবে। এটা রুটিন ব্যাপার। আই ওয়ান্ট টু রিটায়ার্ড, বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন কালকে (শুক্রবার) হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।এছাড়া নির্বাচনকালীন সরকার কেমন হবে, শুক্রবারই তা জানা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘কালকে, কালকের পরে নির্বাচনকালীন সরকার হবে।’তার উত্তর ‍শুনে সাংবাদিকরা জানতে চান, শুক্রবারই মন্ত্রিসভার পুনর্গঠন হচ্ছে কি না। জবাবে মুহিত বলেন, ‘মনে হয় হচ্ছে।’

মন্ত্রিসভায় নতুন করে কাউকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে কি না- এ প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বোধ হয় হচ্ছে না।’সাংবাদিকরা আবারও এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে মুহিত বলেন, ‘মোটামুটি নিশ্চিত। কারণ সরকারটা তো কোয়ালিশন সরকার। এমন কোনো সদস্য নেই যাকে দেওয়ার দরকার আছে। সুতরাং আমার মনে হয় না কোনো রকম অ্যাডিশন হতেই হবে।’

চারজন টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীর পদত্যাগপত্র গ্রহণ না হওয়া পর্যন্ত তাদের মন্ত্রিত্ব থাকবে বলেও জানান মুহিত।তিনি বলেন, ‘তারা (পদত্যাগপত্র দেওয়া চার মন্ত্রী) এখনও আছেন, একসেপ্ট করতে হবে তো। একসেপ্ট সম্ভবত কালকে হবে। আজকে রাতেও হতে পারে।’ওই চার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে কে আসছেন জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘যারা আছেন তারাই কেউ চার্জে থাকবেন। যার মিনিস্ট্রে একটা আছে তার মিনিস্ট্রি দুইটা হয়ে যাবে।’ সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল