মঙ্গলবার, ১৮ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ৪ঠা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আল্লাহর রহমতে ক্যাচটা পেয়ে গেছি : তাইজুল

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডু অর ডাই ম্যাচে মুশফিক-মুমিনুলে রানের পাহাড় গড়ে বাংলাদেশ। ম্যাচের তৃতীয় দিনে তাইজুল ইসলাম ঘূর্ণি জাদু দেখাতে থাকেন। উইকেট নেয়ার মিছিলে যোগ দেন মেহেদী হাসান মিরাজও।

অন্যদিকে পেসার মুস্তাফিজুর রহমান আর অভিষিক্ত খালেদ আহমেদ ছিলেন নিষ্প্রভ। আর সেই সুবিধাটা কাজে লাগিয়ে মিরপুরে ষষ্ঠ উইকেটে ১৩৯ রানের বিশাল জুটি গড়েন ব্র্যান্ডন টেইলর ও পিটার মুর।দলীয় ২৭০ রানের মাথায় মুর ফিরে যান আরিফুলক হকের বলে। ততক্ষণে ১১৪ বলে ৮৩ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংসটি খেলে ফেলেছেন ডান-হাতি এই ব্যাটসম্যান।

মুর ফেরার পর পর ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি তুলে দলকে চালকের আসনেই রাখেন টেইলর। সেঞ্চুরির পর দ্রুত রান তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন ৩২ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। দলের আরও ২০ রান যোগ হবার পর মিরাজের বলে বড় কিছুর আশায় বল উঠিয়ে মেরেছিলেন টেইলর। তবে ডিপ মিড উইকেটে থাকা তাইজুল যেভাবে রূপকথার ফিনিক্স পাখির মতো বলটি ধরে ফেলবেন সেটা না জানাটাই স্বাভাবিক। কিছুক্ষণ পর তুলে নিলেন এই ইনিংসে নিজের পঞ্চম উইকেটটিও।

এতে ফলো অনে পড়ে যায় জিম্বাবুইয়ানরা।দিন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্দান্ত ক্যাচটি নিয়ে মুখ খোলেন ২৬ বছর বয়সী তাইজুল। তিনি বলেন, এই ক্যাচ গুলাতে হয় কী, যে হয় ধরতে হবে নয় মিস হবে। আমি ধরার চিন্তা করেই ডাইভটা দিয়েছি। মাশাল্লাহ আল্লাহর রহমতে পেয়ে গেছি। দিনভর ফিল্ডাররা ক্যাচ ছেড়েছেন গুনে গুনে ছয়টি। এনিয়ে অবশ্য হতাশ নন তাইজুল। তিনি বললেন, আপনি ওভারঅল চিন্তা করলে দেখেন গত ম্যাচে আমরা হেরেছি, কিন্তু ফিল্ডিংটা খুব ভালো ছিল। এই ম্যাচে হয়তবা ক্যাচ মিস হয়েছে, কিন্তু ফিল্ডিং যে খারাপ করছি তা না। ম্যাচে ক্যাচ মিস হবেই দুই একটা।

ডান দিকে ডাইভ দিয়ে ক্যাচ ধরছেন তাইজুল ইসলাম

এদিন টানা তিন ইনিংসে ৫ বা তার বেশি উইকেট নিয়ে তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে রেকর্ড গড়েছেন এই স্পিনার। এর আগে সাকিব আল হাসান ও এনামুল হক জুনিয়রের রয়েছে এই কৃতিত্ব।রেকর্ড গড়া নিয়ে তিনি বললেন, আসলে উইকেটের অবস্থাটা এমন, ভালো জায়গায় আমরা যদি ডিসিপ্লিন বলটা করতে পারি, তাহলে অসম্ভব কিছুই না।