বুধবার, ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

প্রেমিকা যাতে অন্য কাউকে চুমু খেতে না পারে, যা করলেন যুবক

news-image

অনলাইন ডেস্ক : প্রাক্তন প্রেমিকা যেন আর কাউকে চুমু খেতে না পারেন সেই উদ্দেশ্যে নৃশংস শাস্তি দিয়েছেন শেঠ নামে এক মার্কিন যুবক। তিনি জোরপূর্বক চুমু খেয়ে প্রেমিকার ঠোঁট থুবলে নেন। বর্তমানে মুখে প্লাস্টিক সার্জারিসহ ৩০০টি সেলাই নিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন হামলার শিকার ওই নারী।

নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বছর খানেক আগে শেঠের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায় ১৯ বছর বয়সী কায়লার। এর পর বিচ্ছেদ ঘটে তাদের। বিচ্ছেদের পর শেষবারের মতো দেখা করতে কায়লাকে একটি পার্কিং লটে আমন্ত্রণ করেন শেঠ। প্রথমে ভয় থাকলেও পরে দেখা করতে রাজি হয়ে যান কায়লা। তার বিশ্বাস ছিল, যদি শেঠ ক্ষমা চান, তাহলে তাকে ক্ষমা করে দিয়ে আবার সম্পর্ক শুরু করবেন তিনি।

কিন্তু একটি পার্কিং লটে দেখা করে কিছুক্ষণ কথা বলার পর কায়লা বুঝে যান, শেঠের মতলব ছিল অন্যকিছু। কথার এক পর্যায়ে শেঠ জোর করে কায়লার ঠোঁটে চুমু খেতে যান। উত্তপ্ত বাক্যলাপের মধ্যেই কায়লাকে চুমু খেতে গিয়ে ঠোঁট খুবলে নেন শেঠ। এ সময় রক্তাক্ত অবস্থায় সেখানেই বসে পড়েন কায়লা। তিনি সাহায্যের জন্য চিৎকার করাতেই শেঠ পালিয়ে যান।

পরে দুজন স্থানীয় বাসিন্দা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে ঠোঁট জোড়া লাগাতে ৩০০টি সেলাই করতে হয়। পরে প্লাস্টিক সার্জারিও করতে হয়।

এখন অনেকটাই সুস্থ কায়লা। কিন্তু সেই দিনের আতঙ্ক এখনও তাড়া করে বেড়াচ্ছে তাকে।
এ ঘটনায় পরে শেঠকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাকে ১২ বছরের জন্য কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। জেরায় শেঠ পুলিশকে জানায়, তার প্রাক্তন প্রেমিকা যাতে আর কাউকে চুমু খেতে না পারে, তাই সে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে।