বুধবার, ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শুরু রোববার

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার আগামী রোববার শুরু হবে। দলের চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে এই সাক্ষাৎকার হবে।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আজ শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান।

রিজভী বলেন, বিএনপির মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার শেষ দিন আজ। যাঁরা বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী, তাঁদের সাক্ষাৎকার আগামী রোববার দলের চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে শুরু হবে।

সাক্ষাৎকার বিষয়ে রিজভী বলেন, প্রথমে রংপুর বিভাগের পঞ্চগড় জেলার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার হবে। এরপর রাজশাহী বিভাগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। বাকিগুলো পরে জানিয়ে দেওয়া হবে।

মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের বিষয়ে জানতে চাইলে রিজভী বলেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হিসেবে থাকবেন।

গত সোমবার থেকে বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। গত মঙ্গলবার থেকে মনোনয়ন ফরম জমা নেওয়া শুরু করে দলটি।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী অভিযোগ করেন, আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সরকারি দলের লোকজনের অবাধ বিচরণ ঘটছে। নির্বাচন ভবনটি আজ আওয়ামী লীগের অফিসে পরিণত হয়েছে। আওয়ামী লীগের নির্দেশেই পরিচালিত হচ্ছেন নির্বাচন কমিশনের কিছু কর্মকর্তা।

রিজভীর ভাষ্য, ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি ‘একতরফা’ ও ‘প্রহসনমূলক’ নির্বাচন আয়োজনের দিকে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে সরকারি দলকে বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে বর্তমান কমিশন। সরকারি দল প্রতিনিয়ত আচরণবিধি ভঙ্গ করলেও কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। বিরোধী দলকে আইন অনুযায়ী প্রাপ্য কোনো ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। অন্যদিকে, সরকারি দলকে নানান সুবিধা দেওয়া হচ্ছে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরও মন্ত্রী-এমপিরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানসহ নানা অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন, বক্তব্য রাখছেন। পুরো নির্বাচনীব্যবস্থায় জগাখিচুড়ি অবস্থা বিরাজ করছে। নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালন না ঘটিয়ে বরং সরকারবিরোধীদের নানাভাবে কোণঠাসা করা হচ্ছে।

নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে রিজভী বলেন, গতকাল বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সহসাধারণ সম্পাদক আরিফা সুলতানাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আগের দিন মনোনয়নপ্রত্যাশীসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আসা ৬৮ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ৩৮ জনকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। নিপুণ রায় ও আরিফা সুলতানাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাঁদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান রিজভী।