মঙ্গলবার, ১৮ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ৪ঠা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার বন্ধে ইসিকে বিএনপির চিঠি

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরও নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার ও হয়রানি বন্ধ করতে নির্বাচন কমিশনের হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিয়েছে বিএনপি। আজ শুক্রবার দুপুরে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা বরাবর এ চিঠি পাঠিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

চিঠিতে বলা হয়েছে, বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গত কয়েক বছর ধরে এবং বিশেষ করে গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে একের পর এক রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা ও গায়েবি মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার ও হয়রানি করা হচ্ছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য গত ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণা করা হয়। তফসিল ঘোষণার পরও থেকে দেশব্যাপী বিএনপি নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলা দেওয়া হচ্ছে এবং শত শত নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বিএনপির মনোনয়ন প্রার্থীরা যখন সংসদ সদস্য ফরম সংগ্রহ করার জন্য নয়াপল্টনের বিএনপির প্রধান কার্যালয়ে আগমন করছে তখন পথে পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। শত শত নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করছে।

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অমান্য করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গত চার দিন ধরে বিএনপি নয়াপল্টনের আশেপাশে যতো লিংক রোড আছে সেখানে পাহারা বসিয়ে নয়াপল্টন বিএনপি কার্যালয়ের দিকে আগমন ও প্রস্থানরত নেতাকর্মীদের তল্লাশি করছে। এমনকি মনোনয়ন ফরম আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কেড়ে নিয়ে ছিড়ে ফেলছে।

এতে আরও বলা হয়, ৮ নভেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এবং আশপাশের এলাকাসহ সারা দেশ থেকে দলের ৪৭২ জন নেতাকর্মী গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই মর্মে পাঁচটি এজাহারও পাওয়া গেছে। গ্রেপ্তার হওয়া নেতাকর্মীদের পদ ও পদবীসহ গ্রেপ্তারের তালিকা প্রেরণ করা হলো। পরবর্তীতে আরও পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক তালিকা গ্রেরণ করা হবে। বিএনপির পক্ষ থেকে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকুত বানোয়াট মামলা প্রত্যাহারসহ নিঃশর্ত মুক্তি দিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আপনার হস্তক্ষেপ কমানা করছি।