রবিবার, ২০শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৫ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

তিন শক্তির প্রস্তাব পাস, নেই দ্বি-স্তর টেস্ট

52f5f27b85754-ICCসিঙ্গাপুরে আইসিসির বৈঠকে ক্রিকেটের তিন অক্ষশক্তির প্রস্তাব পাস হয়েছে।

আজ শনিবার অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে টেস্ট খেলুড়ে ১০টি দেশের মধ্যে আটটি দেশ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিলে প্রস্তাবটি পাস হয়। পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কাই কেবল এই প্রস্তাবে ভোট দানে বিরত ছিল বলে আইসিসির এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। অর্থাত্, যে দক্ষিণ আফ্রিকা এই প্রস্তাবের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিল, তারাও শেষ অবধি এতে ভোট দিয়েছে। বাংলাদেশ, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ে আগে থেকেই এই প্রস্তাবের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিল।



তিন অক্ষশক্তির খসড়া প্রস্তাব থেকে দ্বি-স্তরবিশিষ্ট টেস্ট ক্রিকেটের ব্যাপারটি বাদ পড়ায় বাংলাদেশ এর পক্ষে অবস্থান নেয়। সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত বৈঠকেও টেস্ট ক্রিকেটকে দুটি স্তরে বিভক্ত করার অংশটি বাদ দেওয়ারই সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে টেস্ট মর্যাদা নিয়ে কিংবা টেস্ট খেলা নিয়ে বাংলাদেশে যে শঙ্কার জন্ম হয়েছিল, তা কেটে গেল।

নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি এন শ্রীনিবাসন আগামী জুলাই মাস থেকে আইসিসির ‘চেয়ারম্যান’ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।



পাস হওয়া এই প্রস্তাবে ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তাবিত নির্বাহী কমিটির (এক্সকো) ধারণাটি গৃহীত হয়েছে। তবে আইসিসির বোর্ডই ক্রিকেটের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী পর্ষদ হিসেবে কাজ করে যাবে বলে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়। এক্সকোর সদস্য সংখ্যা হবে পাঁচ। ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া এক্সকোয় ‘স্থায়ী সদস্য’ হিসেবে কাজ করবে। বাকি দুটি সদস্য অবশিষ্ট সাত টেস্ট খেলুড়ে দেশ থেকে নির্বাচনের মাধ্যমে নেওয়া হবে।



আর্থিক বিষয়াদির ব্যাপারেও আজকের বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, প্রতিটি টেস্ট খেলুড়ে দেশই তাদের ইতিহাস-ঐতিহ্য, মাঠে দলগত নৈপুণ্য এবং আইসিসিতে তাদের আর্থিক অবদানের ভিত্তিতে নিজেদের প্রাপ্য নিশ্চিত করবে।



বৈঠকে একটি ‘টেস্ট ক্রিকেট তহবিল’ গঠনের বিষয়েও সিদ্ধান্ত হয়। এই তহবিল থেকে আর্থিক সুবিধা পাবে ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া বাদে বাকি সাতটি টেস্ট খেলুড়ে দল। এতে টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোকে দ্রুত দ্বিপক্ষীয় আলোচনার ভিত্তিতে ২০২৩ সাল পর্যন্ত একটি পঞ্জিকা প্রস্তুত করারও তাগাদা দেওয়া হয়েছে। ২০২৩ সাল পর্যন্ত ঘরের মাঠে প্রতিটি টেস্ট খেলুড়ে দেশের যথেষ্ট পরিমাণে সিরিজ খেলাও নিশ্চিত হবে বলে আইসিসির প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।



আইসিসির সহযোগী ও সম্ভাবনাময় দেশগুলোর জন্যও টেস্ট পরিবারের সদস্য হওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে আজকের বৈঠকে। এখন থেকে সহযোগী সদস্য দেশগুলোর প্রথম শ্রেণীর প্রতিযোগিতা ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপে চ্যাম্পিয়ন দেশটি টেস্ট র্যাঙ্কিংয়ের ১০ নম্বর দলের সঙ্গে একটি প্লে-অফ ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। এই ম্যাচটি জিতলেই ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ বিজয়ী সহযোগী সদস্য দেশটির টেস্ট মর্যাদা নিশ্চিত হবে।



আগামী ২০১৭ ও ২০২১ সালে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের বদলে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি অনুষ্ঠিত হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। অনেক আলোচনার পরও বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে চার দলের চূড়ান্ত পর্ব আয়োজনের কোনো ফরম্যাট ভেবে বের করতে আইসিসি বোর্ড ব্যর্থ হয়েছে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।



আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি আবারও প্রতিটি আইসিসি সদস্যের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে করে আবারও আইসিসির নিজস্ব এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ, জিম্বাবুয়েসহ আইসিসির শীর্ষ সহযোগী সদস্য দেশগুলোর অংশগ্রহণ নিশ্চিত হলো। উল্লেখ্য, গত দুটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে আইসিসি ওয়ানডে র্যাঙ্কিংয়ের প্রথম আটটি দেশ খেলার সুযোগ পেয়েছিল।

এ জাতীয় আরও খবর

র‍্যাবের অভিযানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ আটক ৩

ভোলায় নিহতের ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ মিছিল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মহাসড়কে অ্যালকোহল ডিটেক্টর চালু

রংপুর জেলা পরিষদ সিটি সেন্টার পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিআইজি

১৭ বছর পর গঠিত কমিটি বাতিল করলেন জাপা’র চেয়ারম্যান

নির্দোষ কাউন্সিলরদের কোনোভাবেই হয়রানি না করার অনুরোধ মেয়র খোকনের

বোরহানউদ্দিনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ৪, গুলিবিদ্ধ ৯

১০ টাকার চাল বিতরণে ১৯ ধরনের অনিয়ম, রংপুরের শানেরহাট ইউপিতে খাদ্যবান্ধব  কর্মসূচির নামে নজিরবিহীন দুর্নীতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

ছক্কা মেরে রোহিত শর্মার ডাবল সেঞ্চুরি

ঢাবির মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

পাল্টাপাল্টি হামলায় ভারতের ৯ ও পাকিস্তানের ৭ জন নিহত