বুধবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

তাবলীগের দুই পক্ষ মুখোমুখি, তীব্র যানজট

news-image

বিশ্ব ইজতেমা পরিচালনা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে তাবলীগ জামাতের দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে। মাওলানা জুবায়ের ও দিল্লির মাওলানা সাদের অনুসারী দুই পক্ষের হাজার হাজার মুসল্লি পৃথকভাবে টঙ্গীতে ইজতেমা ময়দান ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক ও আবদুল্লাহপুর থেকে কামারপাড়া হয়ে আশুলিয়ার দিকে সড়কে অবস্থান নিয়েছে। এতে আজ শনিবার টঙ্গী ও রাজধানীর বিমান বন্দর সংলগ্ন এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

এই দুই পক্ষের বিরোধিতার কারণে আসছে বছরের বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত ঘোষণা করেছে সরকার। ১৫ নভেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় তাবলীগ জামায়াতের বিবদমান দুই পক্ষ ছাড়াও পুলিশের আইজি, ধর্ম সচিবসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। আগামী জানুয়ারিতে বিশ্ব ইজতেমা হওয়ার কথা ছিল।প্রশাসন জানিয়েছে, সরকারের ওই ঘোষণার পর থেকে সময়ে সময়ে দুই পক্ষ জায়গায় জায়গায় অবস্থান নিয়ে আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করে। সবশেষ আজ ভোর থেকে দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিলে সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

টঙ্গী পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদুল ইসলাম জানান, ইজতেমার ময়দানের ভেতর ও প্রধান প্রবেশপথগুলো মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা দখল করে আছেন। অপরদিকে মাওলানা সাদের অনুসারীরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক ও আবদুল্লাহপুর থেকে কামারপাড়া হয়ে আশুলিয়ার দিকে সড়কে অবস্থান নিয়েছেন। কয়েক হাজার মুসল্লি সড়কে অবস্থান নেওয়ায় রাস্তা সরু হয়ে যান চলাচল করছে ধীর গতিতে। একে সেখানে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। তিনি জানান, মুসল্লিরা এমনিতে যান চলাচলে কোনো বাধা দিচ্ছে না এবং কোনো সংঘর্ষ বা অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটেনি। জাহিদুল ইসলাম জানান, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ইজতেমার মুরব্বিদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছেন।

ঘটনার জের ধরে রাজধানীতে বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। বিমানবন্দর চত্বরে ফুটওভার ব্রিজে এখনো একটি পক্ষ অবস্থান করছে। টঙ্গীগামী যানবাহন একটি একটি করে চলছে। অন্যদিকে টঙ্গী থেকে ঢাকাগামী যানবাহনও আসতে পারছে না।
উত্তরা জোনের ট্রাফিকের সহকারী কমিশনার জুলফিকার জুয়েল বলেন, ফজরের নামাজের পর এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

 

প্রথম আলো

এ জাতীয় আরও খবর

ধানমন্ডিতে প্রাইভেটকার ও বাসে আগুন

আগামী ৩১ মার্চ যেসব উপজেলায় ভোট

খালেদা জিয়ার নাইকো দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি ৩ মার্চ

যে ৪টি হাদিসই যথেষ্ট পরিপূর্ণ দ্বীনদারির জন্য

নিউজিল্যান্ড সিরিজ : প্রাপ্তি সাব্বিরের শতক

বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা মাদক ব্যবসায়ী নিহত

ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে কানাডায় একই পরিবারে ৭ জনের মৃত্যু

তীব্র পানি ও খাবার সংকটে শ্রীবরদীর ৬টি গ্রাম, কয়েক হাজার মানুষ দুর্ভোগে

শিক্ষামন্ত্রী বললেন, মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের চিন্তা এই মুহূর্তে নেই

শপথ নিলেন সংরক্ষিত নারী আসনের ৪৯ সদস্য

‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৭ মামলার আসামি নিহত

টেলরের রেকর্ডে বাংলাদেশের লক্ষ্য ৩৩১