বুধবার, ১৭ই জুলাই, ২০১৯ ইং ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কসবায় চুরি হওয়া ৪টি সিএনজি উদ্ধার,আটক ২

news-image
কসবা প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় সোমবার দিনগত রাতে চুরি হওয়া চারটি সিএনজি সহ দুই চোরকে আটক করেছে পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কসবা টি.আলী বাড়ি মোড় সহ বিভিন্ন গ্রামে অভিযান চালিয়ে সিএনজি চোর সিন্ডিকেটের দুই সদস্য সহ তাদের চুরি করা সিএনজিগুলো উদ্ধার করে পুলিশ। দু’জনকে আটক করলেও সিন্ডিকেটের আরো তিনজন পলাতক। আটককৃতরা হলো উপজেলার আকছিনা গ্রামের মৃত সারু মিয়ার ছেলে মো.আল আমিন (৩২) ও শান্তিপুর গ্রামের মৃত আবদুল আজিজ মিয়ার ছেলে মোশারফ হোসেন মুসা। বাকি পলাতক তিনজন হলো মো.খোকন মিয়া, মো.মনির হোসেন ও মো.ছালাউদ্দিন। এস.আই আবু বকর বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে কসবা থানায় মামলা রুজু করেছে।
কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ আবদুল মালেক জানান; গত সোমবার রাতে উপজেলার বায়েক থেকে একটি চুরি করা সিএনজি নিয়ে আটককৃত আলামিন পালিয়ে যাওয়ার সময় গোপন সংবাদে এস.আই রুবেল ও এস.আই আবু বকরের নেতৃত্বে কসবা টি.আলী বাড়ি মোড়ে অবস্থান নেয় পুলিশ। আলামিনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে সিএনজিটি চুরির বলে স্বীকার করে এবং সে আরো তিনটি চুরি করা সিএনজির সন্ধান দেয়। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী সিএনজি চোর সিন্ডিকেটের অন্যান্য আসামীদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বাকি তিনটি সিএনজি ও মোশারফকে আটক করে পুলিশ।
বাকি তিনজন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। আটককৃতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

বিয়ের পরও একাধিক সম্পর্ক, বোমা ফাটালেন রাজ্জাক

অর্ধেক টাকাসহ চোরকে খুঁজে পেলেন অনন্ত জলিল

‘প্রতিপক্ষের ভয়ে’ মিন্নির পক্ষে ছিল না কোনো আইনজীবী

যে কারণে দাফনের ৪৭ দিন পরে কবর থেকে ব্যবসায়ীর লা’শ উত্তোলন

এরশাদ শুধু ভাই ছিলেন না, আমার পিতা-শিক্ষকও ছিলেন : জিএম কাদের

রিফাত হ’ত্যায় মিন্নি জড়িত থাকার যে প্রমাণ পেল পুলিশ

বন্যার পানিতে রেললাইন ডুবে ট্রেন চলাচল বন্ধ

পুরান ঢাকায় ভবন ধস: একজনের লা’শ উদ্ধার

কুপ্রস্তাবে না বলায় ২৩ বার অস্ত্রের কোপ, সেই নারী এখন ব্যারিস্টার!

ছাত্রীদের যৌ’ন হে’নস্থা অভিযোগে রাস্তায় শিক্ষককে ‘বিবস্ত্র’ করে মা’রধর

অসামজ্ঞস্যপূর্ণ সম্পদের মালিক সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের পিওন: দুদকের মা’মলা

প’রকীয়ায় বাধা: রিফাতকে ‘টাইট’ দিতে চেয়েছিল মিন্নি!