রবিবার, ২৬শে মে, ২০১৯ ইং ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে গেলেন মোশাররফ

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : চলছে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল)। এখন তার মাঠে থাকার কথা। সেখানে মহাদুশ্চিন্তা গ্রাস করেছে ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেলকে। ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত তিনি। উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন বাঁহাতি স্পিনার। বৃহস্পতিবার সকালে সিঙ্গাপুরগামী ফ্লাইটে চড়েন ৩৭ বছর বয়সী বোলার।

এর আগে রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রুবেলকে বিদায় জানান স্ত্রী-সন্তানসহ পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠজনেরা। সিঙ্গাপুরের বিখ্যাত মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের নিউরোসার্জন এলভিন হংয়ের অধীনে চিকিৎসা নেবেন তিনি। আগামী ৩/৪ দিনের মধ্যেই তার অস্ত্রোপচার হওয়ার কথা।

গেল সপ্তাহে ব্রেইন টিউমারের বিষয়টি জানতে পারেন মোশাররফ। রাজধানীর আসগর আলী হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানান, তার ব্রেইন টিউমার হয়েছে। সিটি স্ক্যানের পর তা স্পষ্ট হয়েছে। পুরো চিকিৎসা প্রক্রিয়ায় প্রায় ৪০ লাখ টাকা খরচ হবে।

খরচ জোগাতে এখানে-সেখানে ধরণা দেন মোশাররফ। হন্যে হয়ে ঘুরেন। অবশেষে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এবং সতীর্থদের সহায়তায় অর্থ জোগাড়ের পর কালবিলম্ব না করে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হচ্ছেন তিনি।

যাওয়ার আগে প্রত্যাশা করেছেন দ্রুত ফিরে আসার। মোশাররফ রুবেল বলেন, দেশের চিকিৎসকরা বলছেন; টিউমারটি প্রাথমিক অবস্থায় আছে। যদি তাই থাকে কিংবা ক্যান্সারের মতো কিছু না হয় তাহলে আশা করি দ্রুতই ফিরব। এর তিন মাস পর আবার চেতআপ করাতে হবে। আশা করি, সবশেষে সুস্থ হয়ে যাব ইনশাআল্লাহ্‌।

অসুস্থতার খবর চাউর হওয়ার পর ক্রিকেটাঙ্গন থেকে ইতিবাচক সাড়া পান মোশাররফ। সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ও ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালসহ অনেকে। সবাই তাকে সাহস দেন। ফলে নিরাশ না হয়ে অনুপ্রাণিত হন চিকিৎসার জন্য।

জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫টি ওয়ানডে খেলেছেন মোশাররফ। তার নামের পাশে রয়েছে ৪ উইকেট। সেরা বোলিং ফিগার ২৪ রানে ৩ উইকেট। ২০০৮ সালের ৯ মার্চ চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় তার। আর ২০১৬ সালের ৭ অক্টোবর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সবশেষ ওয়ানডে খেলেন তিনি।