শুক্রবার, ২৬শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘এপ্রিল ফুল’ হতে বিরত থাকুন

news-image

“এপ্রিল ফুল” কি এবং কেন?
ফুল (fool) একটি ইংরেজী শব্দ, যার অর্থ হচ্ছে বোকা। “এপ্রিল ফুলের” অর্থ ‘এপ্রিলের বোকা’। “এপ্রিল ফুল” একটি জঘণ্যতম ও ঘণ্য ইতিহাস। পর্তুগীজ রাণী ইসাবেলা এবং পার্শ্ববর্তী রাজা ফার্ডিনান্ডের নেতৃত্বে এক বিশাল বাহিনী নিয়ে চতুর্দিক থেকে ঘেরাও করে অত্যাচারের স্টিমরোলার চালায় স্পেনের মুসলমানদের উপর। দিশেহারা হয়ে যখন মুসলমানদের অবস্থা প্রকট রূপ ধারণ করলো, তখন ধূর্ত ফার্ডিন্যান্ড ঘোষণা দেয়, মুসলমানেরা অস্ত্র সমর্পণপূর্বক মসজিদসমূহে আশ্রয় নিলে তাদেরকে পূর্ণ নিরাপত্তা দেওয়া হবে এবং যারা সমুদ্রের জাহাজ সমূহে আশ্রয় নিবে তাদেরকে অন্যান্য মুসলিম দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

খ্রিস্টানদের প্রতারণা বুঝতে না পেরে সরলমনে মসজিদ এবং জাহাজসমূহে আশ্রয় নেয় মুসলমানেরা। তখনই জালিম, প্রতারক রাজা ফার্ডিন্যান্ডের নির্দেশে খ্রিস্টান সৈন্যরা মসজিদ সমূহে তালাবদ্ধ করে দিয়ে ভিতরে ও বাহিরে আগুন লাগিয়ে সেখানে আশ্রয় নেওয়া ৩০ লক্ষ মুসলমানদেরকে নির্মমভাবে শহীদ করে, এবং জাহাজগুলোতে আশ্রিত মুসলমানদেরকে গহীন সমুদ্রে ডুবিয়ে মারে। অসহায় নারী-পুরুষ ও শিশুদের আত্মচিৎকারে ঐদিন আকাশ-বাতাস ভারি হয়ে উটেছিল। মুসলমানদের দুর্দশা দেখে জালিম, নরচিপাশ, প্রতারক রাজা ফার্ডিন্যান্ডের তার স্ত্রী ইসাবেলাকে জড়িয়ে ধরে আনন্দ উল্লাসে বলে উঠে- Oh Muslim ! How fool you are. হাই মুসলমান ! তোমরা কত বোকা। সেদিনটি ছিল- 1492 সালের 1 লা এপ্রিল। সেই থেকে মুসলমানদেরকে উপহাস করার জন্য ক্রিস্টানেরা প্রতি বছর 1 লা এপ্রিল কে অত্যান্ত জাঁক-জমকের সাথে “এপ্রিল ফুল” হিসাবে পালন করে আসছে।

কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, আমরা এ সম্পর্কে না জানার কারণে এপ্রিল ফুল পালন করে থাকি। বিঃদ্রঃ- সবাই মনযোগ দিয়ে পড়বেন এবং “এপ্রিল ফুল” পালন করা থেকে বিরত থাকবেন। ফেসবুক থেকে সংগৃহীত