সোমবার, ২০শে মে, ২০১৯ ইং ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

প্রতিদিন ২০০ জনকে ইফতার করাচ্ছে ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া

news-image

জেলা প্রতিনিধিঃ আমাদের চারপাশে অনেক অসহায় মানুষ আছেন যাদের পবিত্র এ রোজার মাসেও ঠিকমতো ইফতার করার সামর্থ নেই। এসব অসহায় মানুষের জন্য প্রতিদিন ইফতারের আয়োজন করে যাচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

‘ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ নামের এ সংগঠনটি প্রতিদিন দেড়শ থেকে দুইশজন অসহায় মানুষকে ইফতার করাচ্ছে। সংগঠনের সদস্যদের চাঁদার টাকায় ইফতারের খরচের যোগান দেয়া হচ্ছে। শেষ রোজা পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে বলে জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে পরিচ্ছন্ন শহর হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় নিয়ে ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু করে ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া। এ সংগঠনের রয়েছে এক ঝাঁক স্বপ্নবাজ তরুণ-তরুণী। যারা স্বপ্ন দেখে একটি পরিচ্ছন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়ার। ইতোমধ্যে সংগঠনটির জনকল্যাণমুখী নানা উদ্যোগ বেশ সাড়া জাগিয়েছে। যাত্রা শুরুর পর থেকে সংগঠনটি শহরের বিভিন্ন স্থানে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক অভিযান চালিয়ে মানুষের মাঝে সচেতনাবোধ সৃষ্টির জন্য কাজ করছে। পাশাপাশি ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন সমাজ গঠনে ভূমিকা রাখতে প্রজেক্ট পরিচ্ছন্ন শিক্ষাঙ্গণের মাধ্যমে সচেতনাতামূলক কার্যক্রম এবং পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে গ্রীণ ব্রাহ্মণবাড়িয়া নামেও একটি প্রজেক্ট শুরু করেছে ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ইতোমধ্যে শহরের বিভিন্ন স্থানে ডাস্টবিন স্থাপন ও বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে।

এবার সামাজিক দায়িত্ববোধ ও মানবিকতা থেকে অসহায়দের জন্য ইফতারের আয়োজন করেছে সংগঠনটি। প্রতিদিন শহরের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে অসহায়দের ইফতার করানো হচ্ছে। অসহায়দের সঙ্গে ইফতার করছে সংগঠনের সদস্যরাও। আর প্রতিদিনই তাদের সঙ্গে কোনো না কোনো বিশিষ্টজন যুক্ত হচ্ছেন এ আয়োজনে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, অসহায়দের জন্য ইফতার আয়োজনের মাধ্যমে বিত্তবানদের কাছে একটা বার্তা দিচ্ছি। সেই বার্তা হলো তারাও যেন আমাদের দেখে অসহায়দের সাহায্যে উৎসাহিত হন। আমরা চাই সমাজ থেকে ধনি-গরিবের বৈষম্য দূর হোক। আর এ বৈষম্য দূরীকরণে সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি পর্যায়েও উদ্যোগ নিতে হবে।

এ জাতীয় আরও খবর