বুধবার, ১৭ই জুলাই, ২০১৯ ইং ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘আর করবো না ধান চাষ, দেখবো তোরা কি খাস’

news-image

ধান কাটতে একজন শ্রমিককে মজুরি দিতে হচ্ছে ৯০০ থেকে এক হাজার টাকা। সঙ্গে তিন বেলা খাবার। অথচ প্রতি মণ ধান বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকায়। এত কম দামে ধান বিক্রি করে উৎপাদন খরচ উঠছে না কৃষকের। তাই নিজের পাকা ধানে আগুন লাগিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন টাঙ্গাইলের কৃষক আবদুল মালেক সিকদার।

বিষয়টি নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন সর্বস্তরের মানুষ। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে ধানের দাম বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন। এরই জের ধরে এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এক বৃদ্ধকে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ করতে দেখা যায়।

বৃদ্ধের পরিহিত জামাতে লেখা ‘আর করবো না ধান চাষ, দেখবো তোরা কি খাস’। এমন ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে কৃষকদের প্রতি সহানুভূতি জানিয়ে মত দিচ্ছেন নেটিজেনরা।

‘করবো না আর ধান চাষ, দেখবো তোরা কি খাস’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে দিনাজপুরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী। মানববন্ধন থেকে ধানসহ সব কৃষিপণ্যের ন্যায্য মূল্য নির্ধারণ, কৃষিখাতে পর্যাপ্ত ভর্তুকি দেওয়া এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্মের লাগাম টেনে ধরার দাবি জানানো হয়।

বুধবার (১৫ মে) দুপুর ১২টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি) ও দিনাজপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহণে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ব্যানারে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন-বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ দিনাজপুরের আহ্বায়ক মো. শহিদুল ইসলাম ফাহিম, ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা রুবেল রাজ, মুশফিকুর রহমান, তারেক রেজা, মাহমুদুল আলম, মো. একরামুল হক, মো. হিমেল, সাজ্জাদ হোসেন ও আব্দুল মোমেন।

বক্তারা বলেন, আমরা যতোই কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ি তার পরেও আমরা কৃষকের সন্তান। আমাদের পরিবার ধানের দাম না পেয়ে পথে বসতে চলছে। অথচ সরকার এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। কৃষকরা যে ধান উৎপাদন করে তার চেয়ে অনেক কম ধান সরকার কৃষকদের কাছ থেকে কিনে। তাহলে কৃষকরা বাকি ধানগুলো কিভাবে বিক্রি করবে। অবিলম্বে কৃষককের ধানের ন্যায্য মূল্য দিয়ে তাদের বাঁচানোর জন্য আহ্বান জানান বক্তারা।

এ জাতীয় আরও খবর

বিয়ের পরও একাধিক সম্পর্ক, বোমা ফাটালেন রাজ্জাক

অর্ধেক টাকাসহ চোরকে খুঁজে পেলেন অনন্ত জলিল

‘প্রতিপক্ষের ভয়ে’ মিন্নির পক্ষে ছিল না কোনো আইনজীবী

যে কারণে দাফনের ৪৭ দিন পরে কবর থেকে ব্যবসায়ীর লা’শ উত্তোলন

এরশাদ শুধু ভাই ছিলেন না, আমার পিতা-শিক্ষকও ছিলেন : জিএম কাদের

রিফাত হ’ত্যায় মিন্নি জড়িত থাকার যে প্রমাণ পেল পুলিশ

বন্যার পানিতে রেললাইন ডুবে ট্রেন চলাচল বন্ধ

পুরান ঢাকায় ভবন ধস: একজনের লা’শ উদ্ধার

কুপ্রস্তাবে না বলায় ২৩ বার অস্ত্রের কোপ, সেই নারী এখন ব্যারিস্টার!

ছাত্রীদের যৌ’ন হে’নস্থা অভিযোগে রাস্তায় শিক্ষককে ‘বিবস্ত্র’ করে মা’রধর

অসামজ্ঞস্যপূর্ণ সম্পদের মালিক সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের পিওন: দুদকের মা’মলা

প’রকীয়ায় বাধা: রিফাতকে ‘টাইট’ দিতে চেয়েছিল মিন্নি!