শনিবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শত বছরের অন্ধ বৃদ্ধাকে ধর্ষণ, ১৪ বছরের কিশোরের স্বীকারোক্তি

news-image

টাঙ্গাইলের মধুপুরে শত বছর বয়সী এক অন্ধ বৃদ্ধাকে ধর্ষণের অভিযোগ স্বীকার করেছে গ্রেপ্তার কিশোর সোহেল (১৪)। এদিকে ধর্ষণের শিকার ওই বৃদ্ধার ডাক্তারি পরীক্ষার পর তিনিও বৃহস্পতিবার (২৩ মে) আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার (২০ মে) দুপুরে উপজেলার ফুলবাগচালা ইউনিয়নের আঙ্গারিয়া গ্রামের বাড়িতে ওই বৃদ্ধাকে একা পেয়ে সোহেল নামে এক কিশোর ধর্ষণ করে। সোহেল ওই গ্রামের তোতা খাঁ’র ছেলে। পরে ওই বৃদ্ধার ছেলে বাড়ি ফিরলে তিনি ছেলের কাছে ঘটনা বলেন।

বৃদ্ধার ছেলে জানান, প্রথমে লোকলজ্জার ভয়ে তিনি বিষয়টি নিয়ে মামলা-মোকদ্দমা না করে ওই কিশোরের বাবা-মায়ের কাছে বিচার দেন। এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হওয়ার পর মধুপুর থানার পুলিশ খোঁজ খবর নেওয়ার জন্য বুধবার বৃদ্ধার বাড়িতে যায়। এদিকে পুলিশ যাওয়ার পর ওই কিশোর আত্মগোপন করে। পরে বুধবার রাতে ওই বৃদ্ধার ছেলে বাদী হয়ে মধুপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সোহেলকে গ্রেপ্তার করে।

মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিক কামাল গণমাধ্যমকে জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ওই বৃদ্ধাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে তার জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করার জন্য টাঙ্গাইল বিচারিক হাকিম আদালতে নেওয়া হয়। জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম নওরিন মাহবুব বৃদ্ধার জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন।

এদিকে গ্রেপ্তার হওয়া সোহেল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। তাকেও দুপুরে টাঙ্গাইল বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। পরে সে ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সুমন কুমার কর্মকার তার জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন।