মঙ্গলবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যে ১০টি জেলা থেকে সবচেয়ে বেশি মানুষ বিদেশে যায়

news-image

ডেস্ক রিপোর্ট।। বাংলাদেশের এক কোটির উপর মানুষ এখন পৃথিবীর নানা দেশে অভিবাসী হিসেবে কাজ করছেন। গড়ে বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর সাত লাখের বেশি লোক বিদেশে যাচ্ছেন কাজের খোঁজে। বাংলাদেশে কর্মসংস্থানের অভাব এবং দারিদ্রের কারণেই অনেকে বিপদজনক পথ পাড়ি দিয়ে উন্নত দেশে যাওয়ার পথ বেছে নিয়ে থাকেন। খবর: নয়াদিগন্ত।

আবার বাংলাদেশী শ্রমিকদের বিদেশে যাওয়ার ক্ষেত্রেও ঝক্কি ঝামেলা কম নয়। জনশক্তি রফতানির ক্ষেত্রে বেপরোয়া অতি মুনাফালোভী মধ্যস্বত্বভোগী বা দালালদের দৌরাত্ম্য কোনো ভাবেই রোধ করা যাচ্ছে না। ফলে সরকারের ঘোষণা সত্ত্বেও অভিবাসন ব্যয় কোনোভাবেই কমছে না। একজন বিদেশগামী শ্রমিককে কয়েকগুণ বেশি টাকা খরচ করে বিদেশ যেতে হচ্ছে।

নিজে পরিশ্রম করে টাকা উপার্জনের জন্য বিদেশে যেতে চাইলেও নানা কারণে এই পথটা তাদের জন্য মসৃণ নয়। তারপরও প্রতিবছরই বড় সংখ্যার বাংলাদেশী শ্রমিক বিদেশে যাচ্ছেন। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হলো- বাংলাদেশের সব এলাকা বা জেলা থেকে মানুষ বিদেশে যাওয়ার জন্য আগ্রহী নন। উন্নত দেশগুলোতে যাওয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি জেলার মানুষ রয়েছে অনেকটাই এগিয়ে। আসুন জেনে নেয়া যাক বাংলাদেশের যেসব জেলার মানুষ সবচেয়ে বেশি বিদেশে যান-

১. কুমিল্লা : বাংলাদেশ থেকে সবচেয়ে বেশি মানুষ বিদেশে গেছে কুমিল্লা জেলা থেকে। জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো বলছে, ২০০৫ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত কুমিল্লা থেকে মোট ৬ লক্ষ ১৯ হাজার ১৩৮ জন বিদেশ গেছেন। যেটা রপ্তানি হওয়া মোট জনশক্তির প্রায় ১০.৯৪ শতাংশ।

২. চট্টগ্রাম : ২০০৫ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত এই দশ বছরে এই জেলা থেকে বিদেশে গেছেন ৫ লক্ষ ৪১ হাজার ৭০৯জন। জনসংখ্যা রপ্তানির হিসাবে এটা প্রায় ৯.৫৭ শতাংশ।

৩. ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া : ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া জেলা থেকে বিদেশে গেছেন ২ লক্ষ ৯৫ হাজার ৩৮১জন। শতাংশের হিসাবে যা ৫.২২ শতাংশ।

৪. টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইল জেলা থেকে বিদেশে গেছেন ২ লক্ষ ৯০ হাজার ৭১৭জন। শতাংশের হিসাবে ৫.১৪ ভাগ।

৫. ঢাকা : বাংলাদেশের দেশের রাজধানী ঢাকা। ঘনবসতি পূর্ণ ঢাকা জেলা থেকে এই দশ বছরে বিদেশে গেছেন ২ লক্ষ ৫৩ হাজার ৭৩৪জন। শতাংশের হিসাবে যা ৪.৪৮ ভাগ।

৬. চাঁদপুর : ২০০৫ সাল থেকে ২০১৫ এই দশ বছরে চাঁদপুর জেলা থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গেছেন ২ লক্ষ ৩৫ হাজার ৩৩৪জন। শতাংশের হিসাবে ৪.১৬ ভাগ।

৭. নোয়াখালী : নোয়াখালী জেলা থেকে বিদেশে গেছেন ২ লক্ষ ২৭ হাজার ৩৪৩জন বাংলাদেশী। শতাংশের হিসাবে ৪.০২ ভাগ।

৮. মুন্সীগঞ্জ : ঢাকার পার্শ্ববর্তী মুন্সীগঞ্জ জেলা থেকে বিদেশে গেছেন ১ লক্ষ ৭৩ হাজার ৪৭৭জন বাংলাদেশী। শতাংশের হিসাবে ৩.০৬ ভাগ।

৯. নরসিংদী : মুন্সীগঞ্জের পরেই রয়েছে রাজধানীর পার্শ্ববর্তী আরেক জেলা নরসিংদী। ২০০৫ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ১০ বছরে এই জেলা থেকে বিদেশে গেছেন ১ লক্ষ ৫৯ হাজার ৩৮৪ জন। শতাংশের হিসাবে ২.৮২ ভাগ।

১০. ফেনী : তালিকার দশ নম্বরে রয়েছে ফেনী জেলা। এই জেলা থেকে ২০০৫ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ১০ বছরে বিদেশে গেছেন ১ লক্ষ ৫৬ হাজার ১৯৯জন। শতাংশের হিসাবে যা ২.৭৬ ভাগ।

মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন নামক এক সংস্থার এক গবেষণায় দেখা গেছে, বাংলাদেশ থেকে বিদেশগামীদের মধ্যে ৫২ শতাংশ যায় দালালদের মাধ্যমে। সরকারি সুবিধায় বিদেশে যায় মাত্র দেড় শতাংশেরও কম মানুষ। আত্মীয় স্বজনের মাধ্যমে যায় ২১ শতাংশ। আর নিবন্ধিত-অনিবন্ধিত প্রায় দেড় হাজার বেসরকারি জনশক্তি রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে যায় ১৮.৮৪ শতাংশ মানুষ।