বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০১৯ ইং ৩রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নিউইয়র্কে দুর্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশি তরুণের নামে সড়ক

news-image

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে মর্মান্তিক সড়ক দু*র্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশি তরুণের নামে একটি সড়ক স্থাপন করা হয়েছে। ১১ বছর আগে ২০০৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি কুইন্স বুলোভার্ডে তরুণ সাইকেল আরোহী আসিফ রহমানের সড়ক দু*র্ঘটনায় নি*হত হন। তারই নামে ওই রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে ‘আসিফ রহমান ওয়ে’। শনিবার স্থানটিতে নামফলক স্থাপন করা হয়। বেসরকারিভাবে এটি স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করে ‘ট্রান্সপোর্টেশন অলটারনেটিভ’।

নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির জনপ্রিয়মুখ, লেখিকা ও সংস্কৃতিসেবী লিজি রহমান ও প্রয়াত শরিফুর রহমান বাচ্চুর জ্যেষ্ঠ সন্তান সংগীত শিল্পী আসিফ রহমান। সাইকেল ছিল তার প্রিয় বাহন। প্রতিদিন তিনি সাইকেলেই কর্মক্ষেত্রে যাওয়া-আসা করতেন।

সন্তানের অকাল মৃ*ত্যুতে লিজি রহমান নিরাপদ সড়ক আন্দোলন গড়ে তোলার এক অসাধারণ উদ্যোগ নেন। দিনের পর দিন তিনি অবস্থান নেন দুর্ঘ*টনাস্থলে। আসিফের ব্যবহৃত সাইকেলের আদলে স্থাপন করেন একটি প্রতীকী সাইকেল এবং দাবি জানান, কুইন্স বুলোভার্ডে একটি পৃথক ‘সাইকেল লেন’-এর। এ ব্যাপারে তিনি সহযোগিতা পান আসিফের সতীর্থ সাইকেল আরোহীদের। ক্রমে তার সমর্থনে এগিয়ে আসতে থাকেন জনপ্রতিনিধিরা।

এ ঘটনায় এগিয়ে আসেন উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কাউন্সিলম্যান এবং মেয়র বিল ডিব্লাজিও স্বয়ং। পরে বেসরকারি উদ্যোগে স্থাপিত হয় ‘আসিফ রহমান ওয়ে’। অনুষ্ঠানে লিজি রহমানের সঙ্গে তার মেয়ে মৌমিতা রহমান, ছেলে নাফিস রহমানও উপস্থিত ছিলেন। নাম ফলক স্থাপনের এই অনুষ্ঠানে আসিফের সতীর্থ একদল সাইক্লিস্ট কুইন্স বোরো প্লাজা থেকে সাইকেল চালিয়ে এসে যোগ দেয়।

এ জাতীয় আরও খবর

নেত্রকোণায় ছেলেধরাকে পি’টিয়ে হ’ত্যা; ব্যাগ থেকে শিশুর মা’থা উদ্ধার

জাপার চেয়ারম্যান জিএম কা‌দের

মিন্নির রি’মান্ড বাতিলের আর্জি পাত্তাই পেল না হাইকোর্টে

বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়ালেন অক্ষয় কুমার, দিলেন ২ কোটি টাকা অনুদান

নাটোরে দিনে দিনে বেড়েই চলছে মাছের উৎপাদন

খুলনা টাইটান্সের হয়ে বিপিএল মাতাবেন ওয়াটসন

তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে পুনরায় গ্রহণ করতে চাইলে যা করণীয়

এই ২ খাবার খেলে অসুখ কাছেও ঘেষবে না

মালয়েশিয়ায় অবৈধদের দেশে ফেরার সুযোগ

সৌদি আরব থেকে কিশোরীর ধর্ষককে ধরে আনলেন এই নারী পুলিশ

ফের শাহবাগ অবরোধ করেছে ঢাবি শিক্ষার্থীরা, গাড়ি চলাচল বন্ধ

তসলিমা চাইল ৫ বছর, ভারত দিল তিন মাস