বুধবার, ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মনে হয় দেশটা ছেড়ে চলে যাই : লাইভে ব্যারিস্টার সুমন

news-image

ময়লার ভাগাড়, কালভার্ট, ব্রিজ, ট্রেন, স্কুল-কলেজ, মাদরাসাসহ সমাজের বিভিন্ন অসঙ্গতি ফেসবুক লাইভে তুলে ধরে আলোচনায় আসা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এবার ধর্ষণ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন, ধ*র্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃ*ত্যুদ*ণ্ডসহ নারীর সম্মান নিয়ে কথা বলেছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের সামনে থেকে ফেসবুকে লাইভ করেন তিনি। ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আপনারা দেখছেন, তারা একটি লজ্জাজনক ইস্যু নিয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০ বছর বয়সী তরুণী থেকে শুরু করে ৭০ বছরের বৃদ্ধা পর্যন্ত ধ*র্ষিত হচ্ছে। জাতি হিসেবে মানুষ হিসেবে কতটা মানুষত্বহীন আর লজ্জার। এসব ধ*র্ষকের প্রতি আমাদের সবার ঘৃণা। যে সব আইনজীবী তাদের আইনি সহায়তা দেন বা যারা রাজনৈতিক বা অন্যান্য কারণে সহায়তা দেন তাদেরও ঘৃণা।’

সুমন বলেন, ‘সচেতন নাগরিক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সচেতন নাগরিকরা এখানে দাঁড়িয়েছেন। সমাজের মধ্যে মানবিকতাবোধ উঠে গেছে।’ব্যারিস্টার সুমন আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, ‘সচেতন মানুষ হিসেবে, বাংলাদেশি হিসেবে সমাজের মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে চাই, মানুষ হিসেবে ধ*র্ষণের ঘটনায় আমরা কবে লজ্জা পাব? আর কত নষ্ট হলে আমরা বলব নষ্ট হয়ে গেছি।’

সায়েদুল হক সুমন বলেন, ‘ধ*র্ষিতা শিশুর বাবাও (সায়মার বাবা) যখন দুঃখ নিয়ে কথা বলেন, মনে হয় দেশটা ছেড়ে চলে যাই। তবে দেশটাকে ভালোবাসি আর মানুষকে ভালো লাগে তাই …।’আলোচিত এই ব্যারিস্টার আরও বলেন, ‘উন্নয়ন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। অথচ এখানে ছোট্ট ছোট্ট বাচ্চা মেয়েগুলো মনে করবে দেশের পুরুষ সমাজ ধ*র্ষক। তারা নারীদের সম্মান করতে জানে না।’

শিশুদের ধর্ষন করলে আর নিজেদের মানুষ দাবী করতে পারি না

Posted by Barrister Syed Sayedul Haque Suman on Thursday, July 11, 2019