বুধবার, ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রাম জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি.নাকাল জনজীবন

news-image

শাহনাজ পারভীন, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামে সবকটি নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। রোববার দুপুরে বিপদসীমার ধরলা সেতু পয়েন্টে ৭৯ সে.মি, ব্রহ্মপুত্র চিলমারী পয়েন্টে ৭৫ সে.মি, ব্রহ্মপুত্র নুন খাওয়া পয়েন্টে ৩৯ সে.মি ও তিস্তা কাউনিয়া পয়েন্টে ২২ সে.মি উপর দিয়ে প্রভাবিত হচ্ছে। ফলে এ চারটি নদ-নদীর অববাহিকার চর-দ্বীপচর ও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় কমপক্ষে প্রায় ২ লক্ষাধিক মানুষ এখন পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। ব্রহ্মপূত্র নদের অববাহিকায় যাত্রাপুর, ঘোগাদহ, হাতিয়া, বুড়াবুড়ি, চিলমারী ও নয়ারহাট এলাকায় ৭ হাজার পরিবারের বসতবাড়ী তলিয়ে গেছে। তিস্তা এলাকায় নাজিমখান, বিদ্যানন্দ ও ঘড়িয়ালডাঙ্গা এলাকায় ২হাজার বাড়ীঘর প্লাবিত হয়েছে। রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের চতুরা এলাকায় গত এক সপ্তাহে ১২৫টি বাড়ীঘর বিলিন হয়েছে। এখানে স্কুল, বাজার, মাদ্রাসা, মসজিদ ও মন্দিরের ভাঙন ঠেকাতে ৫ হাজার জিও ব্যাগ দেয়া হলেও তীব্র ভাঙন ঠেকাতে হিমসিম খাচ্ছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। প্লাবিত এলাকার কাচা-পাকা অনেক সড়ক পানিতে নিমজ্জিত।

কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম জানান, কুড়িগ্রাম জেলার ছোট-বড় ১৬টি নদ-নদীর সবকটিতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির মারাত্নক অবনতি ঘটেছে। ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে সারডোবে ধরলা নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে।

কুড়িগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) হাফিজুর রহমান জানান, বন্যা মোকাবেলায় আমাদের পূর্ব প্রস্তুতি রয়েছে। ইতোমধ্যে বন্যা কবলিত উপজেলাগুলোয় চাল, শুকনো খাবার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়াও দেড়শ টন চাল ও তিন লক্ষ টাকা মজুদ রয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

বড় জয়ে দিয়ে ফিরলো ব্রাজিল

মন্ত্রীরা আজ-কাল থেকে বেহেস্তে টিকিট বেঁচা শুরু করেছে : মান্না

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে ওয়ার্কার্স পার্টির মানববন্ধন

তামাকের অবৈধ প্রচারণা বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে রংপুর জেলা প্রশাসন

রংপুর জুড়ে লবণের গুজব ঠেকাতে মাইকিং

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় র‍্যাবের অভিযানে ১২ পাসপোর্ট দালালকে দণ্ড

বাঞ্ছারামপুরে লবন নিয়ে তুলকালাম!

নাসিরনগরে লবণের দাম বৃদ্ধি নিয়ে গুজব, চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরেছেন

সেফাতউল্লাহ সেফুর সব সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

বেশির ভাগ পেঁয়াজ বাজার থেকে ফেরত গেল

হজের প্রাক নিবন্ধন ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত