শুক্রবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

খেলার মাঠ থেকে ২ দিন ধরে নিখোঁজ ৫ শ্রেণির ছাত্র, এলাকায় ‘ক’ল্লাকা’টা’ আ’তঙ্ক

news-image

গত দুদিন ধরে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উদয়ন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শাখার ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী শামসুল হুদা নাদিম কে।শুক্রবার বিকেলে বাসা পাশে খেলার মাঠ থেকে সে নিখুঁজ হয়। তাকে তার আত্মীয় স্বজনসহ কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে তার পরিবার থেকে জানানো হয়েছে। এঘটনায় রাতেই শিশু নাদিমের পিতা ফরিদ মিয়া শ্রীমঙ্গল থানায় পুত্র নিখোঁজের ব্যাপারে সাধারণ ডায়েরী ভুক্ত করেছেন।

এদিকে নাদিমের নিখোঁজের ঘটনায় শ্রীমঙ্গল শহরে অভিভাবকদের মাঝে ‘দেশব্যাপী শিশুদের ক’ল্লাকা’টা’ আ’তংক ছড়িয়ে পড়েছে।নাদিম শ্রীমঙ্গল শহরের বিরাহিমপুর (নিউ পূর্বাশা) এলাকার বাসিন্দা। তার পিতার নাম ফরিদ মিয়া। তিনি পদ্মা ওয়েল কোম্পানিতে কর্মরত। তিন ভাইয়ের মাঝে নাদিম মেজো।

নিখোঁজ নাদিমের পিতা ফরিদ মিয়া বলেন, শুক্রবার বিকেলে নাদিম বাসার পার্শ্ববর্তী মাঠে খেলতে যায়। আসরের নামাজের পর থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। কেউ হয়তো তাকে অ’পহরণ করে নিয়ে থাকতে পারে।এলাকার ইউপি সদস্য মো. লিমন মিয়া বলেন, আমরা তন্নতন্ন করে আমাদের সম্ভাব্য সমস্ত স্থানগুলো খুঁজে দেখেছি। কিন্তু কোথায় তাকে পাওয়া যায়নি। আমরা শহরজুড়ে মাইকিং করা হচ্ছে।

উদয়ন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবিতা দাস বলেন, আমি আমাদের এক শিক্ষকের কাছ থেকে আমাদের বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নিখোঁজের সংবাদটি শুনেছি। এটা খুবই ম’র্মান্তিক। স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে এ বিষয়টির প্রতি দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানাচ্ছি।শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও’সি) আব্দুস ছালেক জানান, এ বিষয়ে লিখিত আবেদন পেয়েছি। শিক্ষার্থীকে খুঁজে বের করার জন্য বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশী করা হচ্ছে। তার সন্ধান পেতে সম্ভাব্য সকল পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কিশোরগঞ্জের নেত্রকোনায় শিশু অ’পহরণ করে মা’থা বি’চ্ছিন করে হত্যা’ ও দেশব্যাপী শিশু অপ’হরণের ঘটনায় শ্রীমঙ্গলে অবিভাবকদের মধ্যে আ’তস্ক সৃস্টি হয়েছে। অবিভাবকরা এখন খুব দুষচিন্তয় ভুগছেন। একা কোন শিশুকে ঘর থেকে বের হতে দিচ্ছেন না।