সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নাটোরের বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী রেজাউল ইসলাম ঋণ খেলাপীর দায়ে গ্রেফতার

news-image

লিটন হোসেন লিমন, নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের মেসার্স ব্রাদার্স সেনেটারী হাউজ ও এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান মেসার্স ব্রাদাস হেলথ কেয়ার ডিভিশন ও ব্রাদার্স ফিশারীজ এন্ড ডেইরী ফার্ম এর স্বত্ত¡াধিকারী বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী মোঃ রেজাউল ইসলাম ঋণ খেলাপীর দায়ে গ্রেফতার হয়েছেন। নাটোর থানা পুলিশ নাটোর শহরের কান্দিভিটুয়ার নিজ বাসা থেকে তাকে আটক করে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে। ব্যবসায়ী মোঃ রেজাউল ইসলাম নাটোর শহরের কান্দিভিটুয়ার মৃত নফস শেখ এর ছেলে।

নাটোর থানা ও অর্থঋণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১০সালে নাটোরের মেসার্স ব্রাদার্স সেনেটারী হাউজ ও এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান মেসার্স ব্রাদাস হেলথ কেয়ার ডিভিশন ও ব্রাদার্স ফিশারীজ এন্ড ডেইরী ফার্ম এর স্বত্ত্বাধিকারী বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী মোঃ রেজাউল ইসলাম ইসলামী ব্যাংক নাটোর শাখা থেকে দেড় কোটি টাকা ঋন নেন।

এসময় তিনি শহরতলীর আমহাটি মহল্লার তার ৩৩৩শতক এবং কৈগাড়ী মহল্লার ২৯৩শতক জমি বন্ধক রাখেন। পরে জমির মূল্য বেশি দেখিয়ে ঋনের পরিমান আরো বৃদ্ধি করেন। বর্তমানে এই ব্যাংকে তার ঋনের পরিমান দুই কোটি ৩৯ লাখ ৫১ হাজার টাকা। দীর্ঘদিন থেকে তিনি ব্যাংকের ঋন পরিশোধ না করায় ব্যাংকের পক্ষ থেকে নাটোরের অর্থঋণ আদালতে তার বিরুদ্ধে ঋণ খেলাপীর মামলা করা হয়। আদালতের বিচারক তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করলে সে আত্মগোপন করে। সোমবার সে বাড়িতে আছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নাটোর থানা পুলিশ তাকে আটক করে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইসলামী ব্যাংক নাটোর শাখার ব্যবস্থাপক এভিপি আবু বকর সিদ্দিক বলেন, সকল নিয়ম অনুসরন করে বিনিয়োগ গ্রহন করার পরও দীর্ঘদিন থেকে ব্যবসায়ী রেজাউল ইসলাম আর ঋণ পরিশোধ করছেন না। অনেক চেষ্ঠার পরও ঋণ পরিশোধ না করায় ব্যাংক নাটোরের অর্থঋণ আদালতে নিরুপায় হয়েই তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

নাটোর থানার ওসি মোঃ জালাল উদ্দিন তাকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নাটোরের অর্থঋণ আদালতের মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হওয়ায় পুলিশ তাকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করেছে।