শনিবার, ১৬ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বয়স বাড়লে যে কারণে শারীরিক পরিবর্তন আসে

news-image

বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরের ক্ষতিকর ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসকারী কিলার সেল তৈরি হয় কম। ফলে অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কাও যায় বেড়ে। এছাড়া এ পর্যায়ে অনেক সময় মানুষের শরীর ভুল অ্যান্টিবডি তৈরি করে যা নিজস্ব কোষকে ধ্বংস করে।

বয়স বাড়লে আমাদের শারীরিক নানান ধরণের পরিবর্তন চোখে আসে। চুল হতে থাকে ধূসর, চামড়ায় ভাঁজ পড়া শুরু করে। রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যেতে শুরু করে। কিন্তু এ পরিবর্তনগুলো কেন আসে?

বয়স অল্প থাকাবস্থায় কোষ বিভাজনের মাধ্যমে যে নতুন কোষগুলো তৈরি হয়, সেগুলোর মান ভালো থাকে। ফলে ডিএনএ-র ভাঙন কাটিয়ে ওঠা সহজ হয়। কিন্তু বয়স বাড়ার সাথে সাথে বিভিন্ন কারণে ডিএনএ-তে ভাঙন বাড়তে থাকে। কোষের কার্যকারিতাও কমে যায়।

অঙ্গপ্রত্যঙ্গের ক্ষেত্রেও তা ঘটে থাকে। হৃৎপিণ্ড ও পেশি দুর্বল হয়ে পড়ে। ফুসফুসও ভালোভাবে কাজ করে না। লিভার আর কিডনি দুর্বল হতে থাকে। ফলে শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান সরানোর কাজটি আর ঠিকমতো হতে পারে না। হৃৎপিণ্ড আর ফুসফুসের শক্তি কমে যাওয়ায় পেশি ও অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ঠিকমতো অক্সিজেন পায় না। পেশি দুর্বল হয়ে যাওয়ায় ব্যায়াম করতে কষ্ট হয়। দাঁতও পড়ে যায়।