মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চুক্তি নয়, শেখ হাসিনা আরেকটি দাসখত দিলেন : রিজভী

news-image

নিউজ ডেস্ক : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে যে ৭টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে তাতে বাংলাদেশের জনগণের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ছে। এগুলো চুক্তি নয় যেন শেখ হাসিনা আরেকটি দাসখত দিলেন।

রোববার (৬ অক্টোবর) নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী আহমেদ বলেন, এ চুক্তির মাধ্যমে মূলত; স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রের সমুদ্র বন্দর, ফেনী নদীর পানি এবং জ্বালানী সঙ্কটময় বাংলাদেশের গ্যাস ভারতের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও নিজেদের নিরাপত্তার কথা না ভেবে উপকূলীয় নজরদারির জন্য বাংলাদেশে রাডার স্থাপনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। তার বদলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পেয়েছেন ক্ষমতার মসনদে থাকার গ্যারান্টি আর ‘ঠাকুর শান্তি পুরস্কার’। তবে বাংলাদেশের জনগণের বদনসিব বিনিময়ে বাংলাদেশ কিছুই পায়নি।

রিজভী বলেন, আমাদের সীমান্তে হত্যার সমস্যার সমাধান হয় না, আমাদের তিস্তার পানির সমস্যার সমাধান হয় না, বর্ষায় ফারাক্কার বাঁধ খুলে দিলে প্রবল বন্যার সৃষ্টি করা হয়, এখনও ভাসছে উত্তরাঞ্চল- এই সমস্যার সমাধান হয় না, বাণিজ্যের মধ্যে বিশাল ভারসাম্যহীনতা -সেটার সমাধান হয় না।

তিনি আরও বলেন, এর আগে গত বছরের মে মাসে ভারত সফর শেষে দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, আমরা ভারতকে যা যা দিয়েছি তারা তা সারা জীবন মনে রাখবে। আর এবারে জনগণকে পানিতে ও ভাতে মেরে প্রধানমন্ত্রীর উৎসাহ ও প্রণোদনায় ফেনী নদীর পানি দান ইতিহাসে শেখ হাসিনার নাম স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি দেশের জনগণকে নিজ দেশের নদীর পানি থেকেও বঞ্চিত করলেন।

বিএনপির এই নেতা বলেন, এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হলে জনগণ ও দেশের স্বার্থের কথা চিন্তা করতো। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাতো রাতের অন্ধকারে বিনা ভোটে ক্ষমতা দখল করেছেন। তাই জনগণের প্রয়োজন নেই। দেশ বিক্রি করে হলেও ক্ষমতা তার প্রয়োজন।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আমাদের স্পষ্ট কথা, এই আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনা বাংলাদেশের ক্ষমতায় থাকলে কখনই বাংলাদেশের স্বার্থ রক্ষিত হবে না। রাষ্ট্র বিরোধী ও জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী এইসব চুক্তি করে প্রধানমন্ত্রী তার সাংবিধানিক শপথ ভঙ্গ করেছেন। নিজ দেশের স্বার্থের চাইতে বিদেশি রাষ্ট্রের স্বার্থ রক্ষা করেছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী পদে থাকার সাংবিধানিক সকল অধিকার হারিয়েছেন। তাই এ মুহূর্তে শেখ হাসিনার পদত্যাগ দাবি করছি।

এ জাতীয় আরও খবর

মহাসড়কে ওসির হাতে রজনীগন্ধা চালকের মুখে হাসি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

আমাদের না জানিয়ে হঠাৎ খেলা বন্ধ করে দেয়া একটা চক্রান্ত : পাপন

নেতানিয়াহু সরকার গঠনে ব্যর্থ

নদীর তীরবর্তী প্রতিষ্ঠানের প্লট-ফ্ল্যাট ক্রয়ে সতর্ক থাকার অনুরোধ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের

রংপুরে নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত

এক পা উদ্ধারের পর পাওয়া গেলো খণ্ডবিখণ্ড দেহ

৪ কেজি চাল বিক্রির টাকায় ১ কেজি পেঁয়াজ কিনলেন নাছিমা

জমকালো অভিষেক সম্রাট ও সম্রাজ্ঞীর

আমি পদত্যাগ করব না : মেনন

খ্যাপা গরু সামলাতে প্রযুক্তি সম্পন্ন হেলিকপ্টার!

গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড