মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিয়ের দাওয়াত খেয়ে ৭০ জন হাসপাতালে

news-image

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী ইউনিয়নে বিয়ে বাড়ির খাবার খেয়ে নারী ও শিশুসহ অন্তত ৭০ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এই রোগীরা বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

এমনকি ওই বিয়ের বর-কনেও খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা যায়। খাবারে বিষক্রিয়ার কারণে এমনটি হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন চিকিৎসকরা।

হাসপাতালে ভর্তি রোগীরা জানায়, রোববার জেলার ময়দানদিঘী ইউনিয়নের গাইঘাটা এলাকার সিরাজুল ইসলামের একমাত্র ছেলে মাজেদুল ইসলামের সাথে একই ইউনিয়নের কাদেরপুর এলাকার আমিরুল ইসলামের মেয়ে আম্বিয়া খাতুনের বিয়ে হয়। সোমবার মাজেদুলের বাড়িতে বৌভাতের আয়োজন ছিল। দুপুর থেকে সন্ধ্যা চলে খাওয়া-দাওয়া কার্যক্রম। খাবার খেয়ে যে যার মতো বাড়ি ফিরে যায়।

সোমবার দিবাগত গভীর রাত থেকে এক এক করে ওই বিয়ে বাড়িতে খাবার খাওয়া লোকজনের মধ্যে ডায়েরিয়া, বমি, পেটব্যথাসহ নানা উপসর্গ দেখা দেয়। এক পর্যায়ে যারা ওই বিয়ে বাড়িতে খাবার খেয়েছিলেন সবাই অসুস্থ হয়ে পড়েন। অসুস্থতার মাত্রা বেড়ে গেলে মঙ্গলবার দুপুর থেকে তারা হাসপাতালে ভর্তি হতে শুরু করেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬০ জন ও পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ৯ জন ভর্তি হন।

বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় প্রতি সিটে দুজন করে রোগী রাখা হয়েছে। এছাড়া বারান্দার মেঝেতে বিছানা পেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন অনেকেই। একসাথে এতো রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসকরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন খাবারে বিষক্রিয়ার কারণে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

বর মাজেদুল ইসলামের বাবা সিরাজুল ইসলাম বলেন, সোমবার সুন্দরভাবেই বৌভাতের আয়োজন সম্পন্ন হয়। গভীর রাত থেকে এক এক করে অসুস্থ হওয়ার খবর আসতে থাকে। এমনকি আমাদের পরিবারের লোকজন ও বর-কনেসহ সবাই অসুস্থ হয়ে পড়ে। আমাদের পরিবারের লোকজন, কনেপক্ষ, আত্মীয় স্বজনসহ আমি এখন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছি। জানিনা কে এমনটা করেছে। আর কিভাবে এ ঘটনা ঘটলো।

বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. জাহিদ হাসান বলেন, রোগীদের লক্ষণ দেখে আমরা মনে করছি খাবারে পয়জনিংয়ের কারণে তারা অসুস্থ পড়েছে। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ওই রোগীদের খোঁজ খবর নিতে যান পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন। এ সময় জেলা পুলিশ সুপার ইউসুফ আলী ও সিভিল সার্জন ডা. নিজাম উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। পরে জেলা প্রশাসক ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন।

এ জাতীয় আরও খবর

মহাসড়কে ওসির হাতে রজনীগন্ধা চালকের মুখে হাসি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

আমাদের না জানিয়ে হঠাৎ খেলা বন্ধ করে দেয়া একটা চক্রান্ত : পাপন

নেতানিয়াহু সরকার গঠনে ব্যর্থ

নদীর তীরবর্তী প্রতিষ্ঠানের প্লট-ফ্ল্যাট ক্রয়ে সতর্ক থাকার অনুরোধ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের

রংপুরে নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত

এক পা উদ্ধারের পর পাওয়া গেলো খণ্ডবিখণ্ড দেহ

৪ কেজি চাল বিক্রির টাকায় ১ কেজি পেঁয়াজ কিনলেন নাছিমা

জমকালো অভিষেক সম্রাট ও সম্রাজ্ঞীর

আমি পদত্যাগ করব না : মেনন

খ্যাপা গরু সামলাতে প্রযুক্তি সম্পন্ন হেলিকপ্টার!

গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড