বৃহস্পতিবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আর এক ইঞ্চি বনভূমিও রোহিঙ্গাদের দেওয়া হবে না : সাবের হোসেন

news-image

নিউজ ডেস্ক : পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়–সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য আর এক ইঞ্চি বনভূমিও দেওয়া হবে না। রোহিঙ্গাদের কারণে বাংলাদেশের অনেক ক্ষতি হয়েছে। বেশি ক্ষতি হয়েছে পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্যের, যা পূরণ করা সম্ভব নয়।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আজ শুক্রবার দুপুরে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়–সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সাবের হোসেন চৌধুরী সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন।

রোহিঙ্গাদের কারণে সৃষ্ট পরিবেশ–সংকটের কারণে বন্য হাতি ঝুঁকিতে আছে মন্তব্য করে সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, উখিয়া ও টেকনাফের ৩৪টি শিবিরে ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাস করছে। রোহিঙ্গাদের বসতি নির্মাণের জন্য ইতিমধ্যে ৮ হাজার একরের বেশি বনভূমি দেওয়া হয়েছে। বনাঞ্চল উজাড় হওয়ায় ৬৩টি বন্য হাতি সংকটে পড়েছে। ক্যাম্পের ভেতরে হাতিগুলো আটকা পড়েছে। গত দুই বছরেও হাতি চলাচলের রাস্তা তৈরি সম্ভব হয়নি।

রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে প্রতিনিয়ত গভীর নলকূপ দিয়ে পানি তোলার কারণে পানির সংকট দেখা দিচ্ছে বলেও মন্তব্য করেছেন সাবের হোসেন চৌধুরী। তিনি বলেন, এখন নতুন সমস্যা পানির সংকট। শিবিরগুলোতে প্রায় ১০ হাজার গভীর নলকূপ দিয়ে পানি তোলা হচ্ছে। পানির স্তর ক্রমান্বয়ে নিচে নামছে আর বিভিন্ন স্থানে পানির সংকট দেখা দিচ্ছে। ভবিষ্যতে এই সংকট ভয়াবহ রূপ ধারণ করবে।

সাবের হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে বক্তব্য দেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, স্থায়ী কমিটির সদস্য সাংসদ জাফর আলম, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনসহ আরও অনেকে। এ ছাড়া বন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের শীর্ষ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, সরকার পরিবেশ সুরক্ষায় খুবই আন্তরিক। পাহাড় কাটা, বনাঞ্চল উজাড়ের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের পরিবেশ সুরক্ষায় সবাইকে আরও আন্তরিক হতে হবে।