সোমবার, ১৮ই জুন, ২০১৮ ইং ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নাসিরনগর ভোটারদের উপস্থিতি কম

news-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সংসদ উপনির্বাচনে ভোট নেওয়া চলছে। সকাল আটটায় ভোটগ্রহণ শুরু হলেও বেশির ভাগ কেন্দ্রেই ভোটারদের উপস্থিতি কম দেখা গেছে। সরেজমিনে ঘুরে কয়েকটি কেন্দ্র প্রায় ফাঁকা দেখা গেছে।

নাসিরনগর উপনির্বাচনে ৭৪টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। এর মধ্যে ৪৯টি কেন্দ্রকে অতিগুরুত্বপূর্ণ ও ২৫টি কেন্দ্রকে সাধারণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে জেলা নির্বাচন কার্যালয়। গত ১৬ ডিসেম্বর এই আসনের পাঁচবারের সাংসদ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হকের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। ১৩টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত এই আসন।

জানা গেছে, আসনটি আওয়ামী লীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। টানা চারবারসহ মোট পাঁচবার এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী প্রয়াত সাংসদ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হক জয়ী হন। এমনকি ২০০১ সালের নির্বাচনে চট্টগ্রাম বিভাগে আওয়ামী লীগের ফল বিপর্যয়ের মধ্যেও এখানে তিনি জয়ী হয়েছেন।

নাসিরনগরে সংসদ উপনির্বাচনে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ-মনোনীত প্রার্থী বি এম ফরহাদ হোসেন, জাপার রেজওয়ান আহমেদ ও ইসলামী ঐক্যজোটের এ কে এম আশরাফুল হক। বি এম ফরহাদ হোসেনের বাড়ি উপজেলার গুনিয়াউক ইউনিয়নে, রেজওয়ান আহমেদের বাড়ি পূর্বভাগ ইউনিয়নে এবং আশরাফুল হকের বাড়ি ধরমন্ডল ইউনিয়নে।

আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত উপজেলার অন্তত পাঁচটি কেন্দ্র (তুল্লাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গুটমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ধরমন্ডল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আশুতোষ পাইলট উচ্চবিদ্যালয়, নাসিরনগর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়) ঘুরে ভোটারদের উপস্থিতি কম দেখা যায়। উপজেলা সদরে অনুমোদনহীন মোটরসাইকেল বেশি দেখা গেছে।

সকাল সোয়া আটটায় তুল্লাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছয়টি ভোটকক্ষে মাত্র ২১টি ভোট পড়ে। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মাসুক মিয়া  বলেন, এই কেন্দ্রে ৩ হাজার ৯৫৮ ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ হাজার ৫৩ এবং নারী ভোটার ১ হাজার ৯০৫।

নাসিরনগর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে ৩ হাজার ৮৫ ভোটার রয়েছে। তবে ছয়টি ভোটকক্ষে সকাল সাড়ে নয়টা পর্যন্ত ২১৮ ভোট সংগ্রহ হয়েছে। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আজিজুল হক বলেন, ভোটার আস্তে আস্তে আসবেন।

আশুতোষ পাইলট উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মাকসুদুর রহমান বলেন, আটটি ভোটকেন্দ্র থাকলেও পৌনে ১০টা পর্যন্ত ১০০ ভোট সংগ্রহ হয়নি। তবে যে কয়েকজন ভোটার দেখা গেছে, তাঁদের অধিকাংশই নারী।

নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে ১৩টি ইউনিয়নের ৭৪টি কেন্দ্রের ৩৬৪টি কক্ষে ভোটগ্রহণ হবে। সংসদ উপনির্বাচনে ৭৪ জন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, ৩৬৪ জন সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও ৭২৮ জন পোলিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করবেন। এই আসনে ভোটার ২ লাখ ১৪ হাজার ৯ জন। এঁদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১০ হাজার ৪১০ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৩ হাজার ৫৯৯ জন।

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে ১ হাজার ৩০২ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। ২৭৩ জন পুলিশ সদস্যের ৩৯টি মোবাইল টিম, ১৩০ জন পুলিশ সদস্যের ১৩টি স্ট্রাইকিং দল, ২০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও আটজন বিচারিক নির্বাহী হাকিম দায়িত্ব পালন করবেন। এ ছাড়া ১২ জন স্ট্রাইকিং রিজার্ভে, নাসিরনগর থানা এলাকায় নিরাপত্তায় ২১ জন পুলিশ সদস্য, উপজেলার চারটি তদন্তকেন্দ্রে চারজন, তদন্তেকেন্দ্রে স্ট্রাইকিং রিজার্ভে থাকবে ১০ জন, পাঁচটি সেক্টর ইনচার্জের সঙ্গে ২৫ জন, ১০টি সাবসেক্টর দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশের সঙ্গে ২৫ জন ও সাদাপোশাকে ২২ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। সাতটি মনিটরিং সেল, তিনটি সাবকন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া সাত প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email