রবিবার, ১৬ই জুন, ২০১৯ ইং ২রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চাঁদের বুকে ফোয়ারা, গবেষণায় বের হলো কারণ

news-image

অনলাইন ডেস্ক: চাঁদের গায়ে ধোঁয়াটে ফোয়ারা দেখে অবাক হয়েছিলেন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও রুটগার বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী। শক্তিশালী টেলিস্কোপের মাধ্যমে তারা দেখতে পান চাঁদের বুকে গভীর, অগভীর ভাসমান ঘন মেঘ।

সন্দেহ কাটাতে দীর্ঘদিন ধরে বিষয়টি নিয়ে গবেষণা চালান তারা। অবশেষে ভেদ হলো রহস্য। আসলে ধোঁয়াটে ফোয়ারা ও ভাসমান ঘন মেঘগুলোর কোনো অস্তিত্ব নেই সেখানে। বরং সেগুলো হলো- চাঁদের নিজস্ব চৌম্বকক্ষেত্র আর অতীতে আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত।

সম্প্রতি লাইভসায়েন্স ডট কম তাদের ওয়েবসাইটের একটি প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়া ও রুটগার বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই বিজ্ঞানীরা দাবি করেন, ধোঁয়াটে ফোয়ারাগুলো হলো চাঁদের নিজস্ব চৌম্বকক্ষেত্র। এগুলো চাঁদের ‘ভূ-চুম্বক’। প্রায় তিন লাখ বছর আগে এগুলো সৃষ্টি হয়েছে।

তাদের এক সমীক্ষায় চৌম্বকক্ষেত্রগুলো গঠনের বিষয়টি সামনে এসেছে। তারা বলছেন, পরীক্ষায় দেখা গেছে, ১২০০ ফারেনহাইট তাপে অক্সিজেনশূন্য অবস্থায় চাঁদের পাহাড় ভেঙে এক ধরনের তরল লোহা নির্গত হয়। এর চৌম্বকশক্তি খুবই তীব্র।

বিজ্ঞানীদের দাবি অনুযায়ী,তিন লাখ বছর আগে চাঁদে যে বিরাট অগ্ন্যুৎপাত হয়েছিল তার লাভা ঠাণ্ডা হয়ে বিস্তীর্ণ ভূমিরূপ গঠন করেছে। এই লাভার শক্তি খুবই বেশি। এ কারণেই তার চৌম্বকশক্তি তীব্র হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

২-০ গোলে কলম্বিয়ার কাছে হেরে কোপা শুরু আর্জেন্টিনার

১৩ বছর বয়সে আটক মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সৌদি আরব!

এই আট কারণে আপনার শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যাওয়ার

এবারও জলজটে ডুববে ঢাকা

বাসায় আটকে দেহব্যবসা, কান্না শুনে দুই নারীকে উদ্ধার

বাবা মানে নির্ভরতার আকাশ আর নিঃসীম নিরাপত্তার চাদর: বাবা দিবস আজ

জন্মদিনে নায়কদের শুভেচ্ছা

অন্তঃসত্ত্বা অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে নিয়ে ‘তোলপাড়’

চোখের পানি ধরে রাখতে পারবেন না এই ভালোবাসার গল্পটি পড়ে

রাত ৪টা ১৫মিনিট ফজরের আজান দিচ্ছে পাশ ফিরে উঠতে যাবো, তখনই খেয়াল করলাম আমার মত একজন শুয়ে আছে…..

বোখারা শহরে এক স্বর্ণের দোকানদার ছিলো, ঘরে ছিলো তার সুন্দরী স্ত্রী। একদিন রাতে লোকটি ঘরে এসে দেখল তার স্ত্রী বসে-বসে কাঁদছে………….

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের মহৌষধ যে গাছটি, এবং এর ব্যবহার বিধি